আপডেট : ১৮ মার্চ, ২০১৬ ১৫:০৯

ভারতে এক বছরে ডাইনি সন্দেহে খুন দেড় শতাধিক মহিলা!

বিডিটাইমস ডেস্ক
ভারতে এক বছরে ডাইনি সন্দেহে খুন দেড় শতাধিক মহিলা!

একবিংশ শতাব্দীতেও রয়েছে মধ্যযুগীয় বর্বরতা৷ শুনলে অবাক লাগে, এখনও ডাইনি সন্দেহে ভারতে পিটিয়ে মারা হয় মহিলাদের৷

২০১২ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে শুধুমাত্র দেশটির ঝাড়খণ্ড অঙ্গরাজ্যে ডাইনি সন্দেহে পিটিয়ে মারা হয়েছিল ১২৭জন মহিলাকে৷

দিল্লি রাজ্যসভায় একটি প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হরিভাই পারথিভাই চৌধুরী ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর (এনসিআরবি) ডেটা তুলে ধরে বলেন, ২০১২ সালে ২৬ জন মহিলাকে হত্যা করা হয়েছিলো। ২০১৩ সালে সংখ্যাটি বেড়ে দাঁড়ায়, ৫৪ জনে। তার পরের বছর হত্যা করা হয় ৪৭ জন মহিলাকে।

এনসিআরবি’র তথ্য অনুযায়ী, ২০১৪ সালে ঝাড়খণ্ডের উপজাতি অধ্যুষিত অঞ্চলে এই ধরনের ঘটনার হার প্রায় ৩০ শতাংশ৷ ঝাড়খণ্ডের পর হয়েছে ওডিশার স্থান৷ ২০১৪ সালে ওডিশার উপজাতি অধ্যুষিত অঞ্চলে ডাইনি সন্দেহে খুন করা হয় ৩২ জনকে৷ মধ্যপ্রদেশে এই সংখ্যাটা ২৪ এবং ছত্তিশগড়ে ১৬৷

তবে শুধুমাত্র সন্দেহের বশে মহিলাদের পিটিয়ে মেরে ফেলার প্রবনতা যে দিনদিন বাড়ছে তা ২০১৫ সালের পরিসংখ্যানে চোখ রাখলেই বোঝা যায়। সে বছরের হিসেব অনুযায়ী দেশটিতে সবচেয়ে বেশি প্রায় দেড় শতাধিক মহিলাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এই পরিসংখ্যানগুলো তুলে ধরা হয় শুধুমাত্র মামলা হয়েছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে। বাস্তব সংখ্যাটা এই পরিসংখ্যান ছাড়িয়ে যাবে বলছেন অনেকেই।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে