আপডেট : ১৭ মার্চ, ২০১৬ ২০:৫৩

পাখির ধাক্কায় ক্ষতবিক্ষত বিমানের নাক

বিডিটাইমস ডেস্ক
পাখির ধাক্কায় ক্ষতবিক্ষত বিমানের নাক

পাখি আকাশে ওড়ে। মানুষের তৈরি বিমানও আকাশে ওড়ে। উড়ন্ত পাখি ও বিমানের মধ্যে ধাক্কা লাগলে কী ঘটতে পারে? সম্প্রতি মিসরের এক যাত্রীবাহী বিমানে এর উত্তর পাওয়া গেছে।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম হাফিংটন পোস্ট জানিয়েছে, গত শুক্রবার ইজিপ্টএয়ারের যাত্রীবাহী বিমানের সঙ্গে পাখির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে অবতরণকালে এ ঘটনা ঘটে। এতে বোয়িং ৭৩৭ বিমানটির সামনের অংশ কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অবতরণের পর তোলা ছবিতে ওই ক্ষতিগ্রস্ত অংশে রক্ত লেগে থাকতে দেখা গেছে।

যুক্তরাজ্যের অপর সংবাদমাধ্যম হেরাল্ড জানিয়েছে, বিমানে পাখির ধাক্কা লাগার অংশের পেছনেই বসে ছিলেন কজন পাইলট। তবে অস্বাভাবিক বিষয়টি মনোযোগ কেড়ে নিলেও বেশ দক্ষতার সঙ্গেই তাঁরা বিমানটির অবতরণ করান। ইজিপ্টএয়ারের বিমানটি মিসরের কায়রো শহর থেকে লন্ডন যাচ্ছিল। এতে ৭১ জন যাত্রী ছিল।

সংঘর্ষে বিমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর এর সঙ্গে লেগে থাকা রক্ত দেখেই বোঝা যায় পাখিটির ভাগ্যে কী ঘটেছে। তবে পাখি বা অন্য কোনো প্রাণীর সঙ্গে বিমানের ধাক্কা ঘটনা অস্বাভাবিক কিছু নয়। প্রতিবছর এমন ঘটনার কারণে শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই সামরিক ও বেসামরিক খাতে ৬০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়। 

যুক্তরাষ্ট্রের বিমান সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, ১৯৯০ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত দেশটিতে বিমানের সঙ্গে বন্য প্রাণী বা পাখির এক লাখ ৪২ হাজার ধাক্কা লাগার ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় ৬২টির মতো বিমান ধ্বংস হয়েছে বা মেরামত করতে হয়েছে। আর ২০১৩ সালে সারা বিশ্বের ৬৫০টি বিমানবন্দরে বন্য প্রাণী বা পাখির সঙ্গে বিমানের প্রায় ১১ হাজারবার ধাক্কা লাগার ঘটনা ঘটেছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম  

উপরে