আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০১৬ ১৪:২০

যৌনতার চাহিদা মেটাতে এ কী কাণ্ড শিক্ষিকার!

অনলাইন ডেস্ক
যৌনতার চাহিদা মেটাতে  এ কী কাণ্ড শিক্ষিকার!

ছাত্রের মোবাইলে একের পর এক মেসেজ, ছবি। দাবি একটাই, যৌনতা চাই। শিক্ষিকার কীর্তি অবশ্য শেষ পর্যন্ত ফাঁস হয়ে গিয়েছে।যৌনতার চাহিদা মেটাতে  এ কী অবাক কাণ্ড করে বসলেন শিক্ষিকা!

ডোনা ব্রান্ট ‘দ্য উইন্ডসর বয়েজ স্কুল’-এর সহকারী শিক্ষিকা। তাঁর বিরুদ্ধেই অভিযোগ উঠেছে। সে অভিযোগ অনেকাংশে তিনি স্বীকারও করে নিয়েছেন। কী সেই অভিযোগ?

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, ৩৭ বছরের শিক্ষিকা ডোনা তাঁর স্কুলের এক ছাত্রকে ক্রমাগত অশ্লীল মেসেজ পাঠিয়ে গিয়েছেন। দু’জনের মধ্যে কতগুলি মেসেজ আদানপ্রদান করা হয়েছিল জানেন? প্রায় ২,৫০০! সঙ্গে সেক্স টয়-এর ছবি। নানাবিধ দাবি, যার মধ্যে সেই সেক্স টয় ব্যবহার করে তার ভিডিও থেকে শুরু করে হস্তমৈথুনের ভিডিও— কী নেই।

ওই শিক্ষিকা এ-ও বলেছিলেন, সংশ্লিষ্ট ছাত্রটি যদি একবার তাঁকে ‘‘আই লাভ ইউ’’ বলে, তা হলে তৎক্ষণাৎ তিনি ওই ছাত্রের সঙ্গে যৌনক্রী়ড়ায় মাতবেন। এই ধরনের মেসেজ দু’জনের মধ্যে চলতে থাকে। কিন্তু একদিন ওই ছাত্রের পরিবারের এক সদস্য ছাত্রটির মোবাইল দেখে ফেলেন। তার পরেই পুরো বিষয়টি ফাঁস হয়ে যায়।

উপরে