আপডেট : ৭ মার্চ, ২০১৬ ১১:৪৫

নারীর মুখ ভর্তি দাড়ি! তবু তিনি সেরা র‌্যাম্প মডেল

বিডিটাইমস ডেস্ক
নারীর মুখ ভর্তি দাড়ি! তবু তিনি সেরা র‌্যাম্প মডেল

নারীর সঙ্গে দাড়ি শব্দটা কোনভাবেই মানানসই নয়। কিন্তু সৌন্দর্য্যের মাপকাঠি বরাবরই খুব ধোঁয়াটে। আজ যিনি সুন্দরী বলে খ্যাত, কাল তাঁর রূপ ‘ডেটেড’ বলে চিহ্নিত হতেই পারে। তাই বলে দাড়ি-সমেত কোনও মহিলা মডেলিং করছেন, এতটা বোধ হয় ভাবা যায় না! 

অথচ এমনটাই ঘটেছে হরনাম কাউরের ক্ষেত্রে। সম্প্রতি তিনি এক জুয়েলারি শো-র সুবাদে র‌্যাম্পে হাঁটলেন মডেলের সম্পূর্ণ মহিমায়। কিন্তু তাঁর গালে শোভা পেল রীতিমতো ভরাট দাড়ি।

ছোটবেলা থেকেই হরনামের ইচ্ছে ছিল মডেলিংয়ের। কিন্তু ১১ বছর বয়স থেকে শরীরে বাড়তে থাকে লোম-বাহুল্য। পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমে ভুগছিলেন হরনাম। সেই সঙ্গে ছিল হরমোনের জটিল সমস্যা। ১৬ বছর বয়স পর্যন্ত তিনি হেয়ার রিম্যুভাল ব্যবহার করেছেন। তা সত্ত্বেও যখন দেখলেন পড়শি আর পরিজনই তাঁকে নিয়ে ব্যঙ্গ করছে, তখন স্থির করলেন, আর নয়। তিনি যেমন, ঠিক তেমনটিই বাঁচবেন। বাড়তে দিলেন দাড়িকে। সেই সঙ্গে চালিয়ে গেলেন মডেল হওয়ার সাধনা। 

হরনাম মনে করেন, তাঁর দাড়িই তাঁর আত্মবিশ্বাসের উৎস। দাড়িই তাঁকে ‘সম্পূর্ণ’ করেছে। প্রথাগত নারীকল্পকে ভেঙে বেরিয়ে আসতে সাহায্য করেছে।

উপরে