আপডেট : ৭ মার্চ, ২০১৬ ১০:২৩

মৃত স্বামীর আত্মাকে নিয়ে ফটোগ্রাফি! ভালোবাসার এক অনবদ্য গল্প...

বিডিটাইমস ডেস্ক
মৃত স্বামীর আত্মাকে নিয়ে ফটোগ্রাফি! ভালোবাসার এক অনবদ্য গল্প...

ভালোবাসার কাছে হার মানে পৃথিবীর সকল কিছু। মৃত স্বামীকে নিয়ে ফটোগ্রাফি করে ভালোবাসার এক অনবদ্য গল্প তৈরি করেছেন মিসিসিপির নাগরিক নিকোলা বেনেট। চলে যাওয়া সময়কে স্মৃতির পাতায় ধরে রাখতেই সবাই ফটোগ্রাফি করে থাকেন। বেনেটও তার মৃত স্বামীকে ধরে রাখতে এবং সন্তানদের স্মৃতিতে বাবাকে উজ্জ্বল রাখতে ফটোগ্রাফি করিয়েছেন।

বেনেটের এই ফটোগ্রাফির কাহিনীটি অত্যন্ত হৃদয়বিদারক। নিকোলা বেনেট দ্বিতীয়বারের মত মা হতে চলেছেন। কিন্তু তার স্বামী ডিওন্টা কয়েক মাস পূর্বে পরলোকগমন করেছেন। কিন্তু বেনেট তার ফটোগ্রাফিতে নিজের স্বামীকে অন্তর্ভুক্ত করেছেন। সে সারাজীবন এই মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে চান। তাই এই হৃদয়বিদারক পরিকল্পনা করেছেন তিনি।

বেনেট তার প্রতিটি ছবির দৃশ্যে তার ৪ বছর বয়সী ছেলে লানডেন এবং তার স্বামীর আত্মাকে দৃশ্যায়ন করেছেন। তার দৃশ্যায়নের পক্ষপট থেকে বুঝা যায় যে, ভাগ্যের নিকট ডিওন্টা হার মানলেও এখনও তিনি তাদের আশেপাশে রয়েছেন। নিকোলার স্বামী তাদের ছেড়ে কোথাও যায়নি। ডেইলি মেইলকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে নিকোলা বলেন, তিনি আশা করছেন যে এই চিত্রগুলো দেখা তার সন্তানেরা তাদের পিতাকে অনুভব করতে পারবে। এটি তার ছেলে এবং অনাগত মেয়ের জন্য তার পিতার স্মৃতি এবং অবশ্যই তার জন্য একটি বিশাল সুখময় স্মৃতি।

এই সকল ছবি তুলেছেন চিত্রশিল্পী কনলে। তিনি এই সকল ছবিতে ডিওন্টার ছবি ডিজিটালভাবে সংযুক্ত করেছেন। ছবিগুলো তৈরির সময় নিজের অভিব্যক্তির কথা জানাতে গিয়ে কনলে বলেন, ‘চোখে অশ্রু নিয়ে আমি এই ছবিগুলো তৈরি করেছি।’ ছবিগুলো বেনেটের অনেক পছন্দ হয়েছে। কনলের ফেসবুক পেজ থেকে এই ছবিগুলো এখন পর্যন্ত ১,০০,০০০ বার শেয়ার করা হয়েছে।

সত্যিকারের ভালবাসার কখনও মৃত্যু হয় না। এই ছবিগুলো যেন আবারও তা প্রমাণ করছে। এই ছবিগুলো দেখে বেনেটের সন্তানেরা সবসময় তাদের বাবাকে নিজেদের আশেপাশে অনুভব করবে।

সুত্র: ইন্ডিয়া টাইম্‌স।

উপরে