আপডেট : ১৪ মার্চ, ২০১৯ ১৫:২৯

মোবাইলে পর্ন দেখলে যেভাবে ফেঁসে যেতে পারেন...!

অনলাইন ডেস্ক
মোবাইলে পর্ন দেখলে যেভাবে ফেঁসে যেতে পারেন...!

এ দেশে পর্ন দেখার সংখ্যা অনেক প্রচুর। বাড়িতে দরজা বন্ধ করে তো কখনও রেল স্টেশনের ফ্রি ওয়াইফাই, পর্ন সাইটে ঢু মারার নজির অনেক রয়েছে। ইদানিং, মোবাইলে পর্ন দেখার সংখ্যা বেড়েছে। একধাপ এগিয়ে পর্ন ভিডিও সমেত অ্যাপও বাজারে হাজির হয়েছে। 

এদেশে পর্ন দেখা বেআইনি নয়, সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তবে বেশ কিছু কারণে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে পর্ন দেখা উচিত নয়। কী সেই কারণ? দেখে নেওয়া যাক- 

১) অবৈধ VAS সাবসক্রিপশন হতে পারে : অধিকাংশ সময়ই পর্ন বিনামূল্যে দেখা যায়। তবে এর জেরে অন্য খরচ বাড়তে পারে। জনপ্রিয় পর্ন সাইটগুলিতে লুকানো থাকে অবৈধ VAS সাবসক্রিপশনের অপশন। অজান্তেই যাতে ক্লিক করেন ইউজার। অ্যান্ড্রয়েড ফোনে এই আশঙ্কা বেশি থাকে। 

জ্যোতিষ, ড্রিম গার্ল প্যাক, জুইসআপ প্যাক ইত্যাদি VAS পরিষেবা ইউজারের অজান্তেই চালু হয়ে যায়। এবং এর জন্য মাস প্রতি বিলও দিতে হতে পারে। 

২) পর্ন টিকার! সেটা কী : ধরে নেওয়া যাক, আপনি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল থেকে পর্ন দেখলেন। তা ট্র্যাক করে পর্ন টিকার ভুয়ো অ্যাপ হিসেবে দেখা দেবে। টেম্পল রান থেকে হেয় ডে- প্লে স্টোরে গেলে এমনই ভুয়ো গেমের ভার্সন চোখে পড়বে। এবার যদি ক্লিক করলেন, মোবাইল ট্রজন ভাইরাস ডাউনলোড হবেই। 

এই কারণেই মোবাইলে পর্ন দেখার সময়, ইনকগনিটো মোডে সার্ফিংয়ের পরামর্শ দেওয়া হয়। যাতে তা ট্র্যাক না হয়। 

৩) তথ্য হ্যাক হওয়ার আশঙ্কা : নিজের ই-মেইল আইডি দিয়ে লগ ইন করা অবস্থায়, যে কোনও পর্ন সাইটে যাওয়া মানে হ্যাকিংয়ের আশঙ্কা বহুগুণ বাড়িয়ে দেওয়া। বিশেষত অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকে এই আশঙ্কা বেশি থাকে। 

৪) র‌্যানসমওয়ার : অনলাইনে আসলে কিছুই বিনামূল্যে পাওয়া যায় না। সব কিছুরই দাম দিতে হয়। কখনও অর্থের বিনিময়ে বা ডেটার বিনিময়ে। র‌্যানসমওয়ার আসলে এক ধরনের ম্যালওয়ার, যা মোবাইলকে লক করে দিয়ে আনলকিংয়ের জন্য ইউজারের থেকে টাকা দাবি করে। পর্ন সাইটে এমনই র‌্যানসমওয়ার ভর্তি থাকে। সূত্র : ইন্ডিয়া টাইমস

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে