আপডেট : ২২ মার্চ, ২০১৮ ১৫:৫৪

ক্যানসার কেন হয়?

অনলাইন ডেস্ক
ক্যানসার কেন হয়?

সারাবিশ্বেই ক্যানসার একটি চলমান প্রাণঘাতীর নাম। প্রতি বছরই ক্যানসারের বহু লোক মারা যায়। এখনো এর কোনো প্রতিষ্ঠিত এবং শক্তিশালী চিকিৎসা পদ্ধতিও নেই। এ নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতারও যথেষ্ট অভাব রয়েছে। আর গবেষণায় প্রমাণিত যে মানুষ দৈনন্দিন জীবনে এমন কিছু কাজ করে, যা তাকে ক্যানসারের দিকে অনেক বেশি পরিমাণে ঠেলে দেয়। কী কারণে ক্যানসার ঝুঁকি বাড়ে তাঁর সহজ কিছু কারণ থাকছে আজ:

ধূমপান
ক্যানসারের সবচেয়ে বড় কারণই হলো ধূমপান। নিয়মিত ধূমপান করলে একটু একটু করে মানুষ ক্যানসারের দিকে এগিয়ে যায়।

মেদবৃদ্ধি
শরীরে মেদ জমলে রোগ বাসা বাঁধতে থাকে। ফলে এই মারণ রোগ থেকে দূরে রাখতে মেদ থেকেও দূরে থাকা উচিত।

অতিরিক্ত মদ্যপান 
অগ্ন্যাশয়ের ক্যানসারের অন্যতম কারণ হল অতিরিক্ত মদ্যাপান করা। অতিরিক্ত মদ্যপান করলেই ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। মদ্যপান করলে যকৃত, মুখ, ঠোঁট ও মলদ্বারে ক্যানসার হতে পারে।

রোদ
ত্বকে অতিবেগুনি রশ্মি নিয়মিত লাগলে, ত্বকে ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই রোজ রোদে বের হবার সময়ে ঢাকা পোশাক পরুন ও ছাতা নিন।

প্রসেসড মাংস
প্রতিদিন রেড মিট বা প্রসেসড মাংস, যেমন সসেজ, সালামি, বেকন ইত্যাদি খেলে ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

ট্যালকম পাউডার
ট্যালকম পাউডার ত্বকের পক্ষে খুবই ক্ষতিকারক। শরীরে পাউডার ব্যবহার নিয়মিতভাবে করলে স্কিন ক্যানসার হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। আবার যারা শরীরের সংবেদনশীল অংশে পাউডার মাখেন, তাদেরও সাবধান থাকা উচিৎ।

সোডাসমৃদ্ধ খাবার
বাজার চলতি সোডা, সরবত বা বেভারেজে এমন কিছু কেমিক্যাল থাকে, যা রোজ খেলে ডিম্বাশয়, গলব্লাডার, অগ্ন্যাশয়ে ক্যানসার হতে পারে। মেনোপজের পরে স্তনের ক্যানসারও হতে পারে।

লবণ
অতিরিক্ত পরিমাণে লবণ খেলেও পাকস্থলীর ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়।

প্লাস্টিক মোড়কের খাবার
আমরা সবাই কমবেশি প্লাস্টিকের বাক্স, পলিথিন, কৌটায় খাবার মোড়কজাত করা খাবার খাই। এটা খুবই ক্ষতিকর কারণ এর ক্ষতিকর উপাদান খাবারের সঙ্গে সরাসরি আমাদের পেটে যায়। এতে করে অন্ত্রের ক্যানসার হবার ঝুঁকি বাড়ে।

অতিমাত্রায় প্রসাধনী ব্যবহার
অনেকেই সৌন্দর্য চর্চায় অতিমাত্রায় প্রসাধনী ব্যহার করেন। বিশেষ করে নারীরা। এতে করে তাদের চামড়া, ফুসফুস, অন্ত্রে ক্যানসারের আশঙ্কা বেড়ে যায়।

নেশাদ্রব্য
বিভিন্ন ধরনের নেশাজাতীয় দ্রব্য যেমন পান-সুপারি, জর্দা, তামাক সেবনের ফলে মুখের মধ্যে ওরাল ক্যানসার হবার প্রবণতা অনেক বেড়ে যায়।

বিডিটাইমস৩৬৫/জামি

উপরে