আপডেট : ১৫ মার্চ, ২০১৬ ১৩:৪৬

জীবন থেকে না পালিয়ে ঘুরে দাঁড়ান।কীভাবে জানুন...

বিনোদন ডেস্ক
জীবন থেকে না পালিয়ে ঘুরে দাঁড়ান।কীভাবে জানুন...

প্রতিনিয়তই জীবনের দৌড়ে নানাভাবে আমরা হয়ে পড়ি একা, কখনও হতাশ। মনে হয় জীবনত্যাগেই সমস্যার সমাধান। এটাকে বলে জীবন থেকে পালিয়ে যাওয়া।

হতাশায় ভুগছেন। চাকরি নিয়ে সমস্যা। সম্পর্কে ধাক্কা। তা বলে জীবন থেকে পালানোর চেষ্টা করবেন না। কী উপায়ে করবেন মোকাবিলা? 

১. কোনও সমস্যায় পড়লেই আমরা পালিয়ে যেতে চাই। মনে করি অন্যত্র চলে গেলেই সমস্যার সমাধান হবে। আপনি কী কখনও ভেবেছেন, যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তার পিছনে আপনি কতটা দায়ী? আগে সেটা বিচার করুন। তার পরে নিজের কৌশল বানান। মানসিক শক্তি হারাবেন না। চেষ্টা করুন নিজেকে ‘কুল অ্যান্ড টেনশন ফ্রি’ করার। পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করুন। পারলে ঘণ্টাখানেকের জন্য নদীর ধারে বা পাহাড়ে, জঙ্গলে ঘুরে বেড়ান অথবা লং ড্রাইভে যান। 

২. মানসিক অশান্তি এতটাই চরমে ওঠে যে, আমরা মনে করি অন্য কাউকে এই অবস্থায় পড়তে হচ্ছে না। আসলে প্রত্যেকেই প্রত্যেকের মতো করে সমস্যা আছে, প্রত্যেকেই তার মোকাবিলা করছে, কেউ পালিয়ে যাচ্ছে না।  

৩. চাকরি ক্ষেত্রে সমস্যা। বসের সঙ্গে ঝামেলা বা কোনাও সহকর্মী আপনাকে বিপাকে ফেলেছে। অফিসের পারফরম্যান্সে কোনও প্রভাব পড়ছে। চাকরি ছেড়ে দেওয়াটা সমাধান নয়। পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেকে মানানোর চেষ্টা করুন। নতুন অপশন পেলে তবেই চাকরি ছাড়ার কথা ভাবতে পারেন। তবে জেনে রাখবেন, সর্বত্রই চাকরিতে সমস্যা আছে। 

৪. একাকীত্ব সইতে পারছেন না। কিন্তু, জীবনত্যাগে কোনও আপনার ক্ষতি। তাই বরং সঙ্গী খুঁজুন না হলে এমন একটা গ্রুপের সঙ্গে ভিড়ে যান যাদের সঙ্গে আপনি কিছুটা সময় কাটাতে পারবেন। 

৫. মন ভাল না থাকলে বেড়াতেও যেতে পারেন। ভাবছেন বেড়াতে যাওয়া মানেই ফের গাদাগুচ্ছের খরচা। স্বল্পব্যয়ে ঘুরে আসা যায় এমন জায়গায় চলে যান দু’একদিনের জন্য। 

৬. বাড়ি ফিরে ফাঁকা লাগছে। বই পড়ুন, চা খান। পারলে বন্ধুদের ফোন করুন। না হলে নিজের আপনজনকে কাছে ডাকুন। আর সেটাও না থাকলে... ঘরে স্থায়ী সঙ্গী আনুন। 

উপরে