আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৪:০২

এক সময়ের আতঙ্কের নগরী এখন জনপ্রিয় পর্যটন শহর!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
এক সময়ের আতঙ্কের নগরী এখন জনপ্রিয় পর্যটন শহর!

কুখ্যাত অপরাধীদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরানোর ফলে বদলে গেছে পানামার কাসকো আন্তিগো শহরের চেহারা। এক দশক আগেও যে নগর ছিল আতঙ্কের সেখানে এখন নির্ভয়ে ঘুরছে অসংখ্য পর্যটক। আর এই পর্যটকদের গাইড হিসেবে কাজ করছে সাবেক অপরাধীরাই।

কুখ্যাত অপরাধী থেকে ছিঁচকে চোর সবার দাপটে আতঙ্কের এক নগরী ছিল কাসকো আন্তিগো। পানামার এই শহরে ভুলেও পা দেয়ার সাহস দেখাতেন না কোনো পর্যটক। এমনকি সাধারণ নগরবাসীর দিনও কেটেছে তীব্র আতঙ্কে।

তবে এক দশক আগের সেই দিনগুলো এখন শুধু গল্প। আর সেই গল্প যারা শোনাচ্ছেন… ১০ বছর আগে তাদের দেখলে যে কারো মেরুদণ্ডে বইতো ভয়ের স্রোত।

খুনি-ডাকাত কিংবা ছিঁচকে সবার চরিত্র বদলে দিয়ে একদম ভালো মানুষে পরিণত করায় মূল ভূমিকাটি বেসরকারি বিনিয়োগকারীরা। তাদের চেষ্টায় এক সময়ের কুখ্যাত নগরী কাসকো আন্তিগো এখন জনপ্রিয় পর্যটন শহর।

অবশেষে এই শহর তার পুরোনো ঐতিহ্যকে নতুন করে ফিরিয়ে আনতে পেরেছে। বৈচিত্র্যময় ও গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্যগুলো সবার সামনে আমরা তুলে ধরতে পেরেছে।

শহরে পা রাখা পর্যটকদের বিভিন্ন স্পট ঘুরিয়ে দেখার কাজ করছেন এককালের ভয়ঙ্কর অপরাধীরা। কাসকো আন্তিগোর আকর্ষণ কেবল প্রাচীন স্থাপনা নয়, ঘুরে বেড়ানোর ফাঁকে পর্যটক দল সাবেক অপরাধীদের মুখেই শুনতে পারছে তাদের রোমাঞ্চকর অতীত অভিজ্ঞতা।

সাদাসিধে দেখতে যাকে নিয়ে আপনি ঘুরছেন তিনি হয়ত হঠাৎ জানাবেন এক সময়ে ডাকাতির নেশা ছিল তার। হয়ত বলবেন আমাকে দেখ, আমি অনেক বছর কারাগারে ছিলাম। তোমাদের মতো অনেক পর্যটকের সর্বস্ব লুট করেছি। এসব শুনে পর্যটক হয়ত চমকে উঠবেন। তিনিও কি এবার সব হারাতে বসেছেন! আর যখন তা ঘটবে না তিনি সত্যিই মুগ্ধ হবেন।

অপরাধীদের জীবন বদলানোর পাশাপাশি শহরও সেজেছে নতুন করে। সব ভবনে লেগেছে রঙ, ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাগুলোকে সাজানো হয়েছে আকর্ষণীয়ভাবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে