আপডেট : ১১ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৮:৫৭

পারমানবিক বোমা! কার আছে কত?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পারমানবিক বোমা! কার আছে কত?

বিজ্ঞানের অবদান মানব সভ্যতার জন্য আশীর্বাদ। তবে বিজ্ঞানের সব আবিষ্কার যে মানুষের কল্যাণে এসেছে এমনটা নয়। বিজ্ঞান আমাদের হাতে এমন কিছু আবিষ্কারও তুলে দিয়েছে যা আমাদের নিজেদেরই ধ্বংশের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

যদি প্রশ্ন ওঠে যে পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ানক অস্ত্র কি? তাহলে প্রথমেই যে অস্ত্রের নাম সবার মাথায় আসবে সেটা হলো পারমাণবিক বোমা।

বর্তমানে বিশ্বের নয়টি দেশের কাছে মোট ১৬,৩০০ পারমাণবিক বোমা আছে৷ তবে এ সব বোমার সংখ্যা কমানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে৷

আসুন, জেনে নেওয়া যাক স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইন্সটিটিউটের (এসইপিআরআই) তথ্য অনুসারে কোন দেশের হাতে কতগুলো পারমানবিক মরনাস্ত্র আছে সেটার সংক্ষিপ্ত বিবরণ-

রাশিয়ার কাছে আছে সবচেয়ে বেশি: 

রাশিয়ার কাছে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে৷ সে দেশের হাতে থাকা বোমার সংখ্যা সাড়ে সাত হাজারের বেশি৷ ১৯৪৯ সালে দেশটিতে প্রথম পারমাণবিক বোমার পরীক্ষা চালানো হয়েছিল৷

দ্বিতীয় স্থানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র:

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রই প্রথম পারমাণবিক বোমা বানিয়েছিল এবং একমাত্র দেশ যারা এটা যুদ্ধে ব্যবহারও করেছে৷ দেশটির এখন সাত হাজারের বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে।

সাবমেরিনে পারমাণবিক বোমার প্রযুক্তি রয়েছে ফ্রান্সের:

ফ্রান্সের কাছে নিউক্লিয়ার ওয়ারহেড আছে তিনশো’র মতো৷ এগুলোর অধিকাংশই রয়েছে সাবমেরিনে৷দেশটির অন্তত একটি সাবমেরিন সবসময় পারমাণবিক বোমা নিয়ে টহল দেয়৷

পিছিয়ে নেই চীন:

অনুমানিক আড়াইশো’র মতো পারমাণবিক বোমা আছে চীনের কাছে৷ রাশিয়া বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় সংখ্যাটা অনেক কম হলেও দেশটি ধীরে ধীরে এই সংখ্যা বাড়াচ্ছে৷ স্থল, আকাশ বা সমুদ্রপথে বোমা ছোঁড়ার প্রযুক্তি রয়েছে চীনের কাছে।

ব্রিটেনের কাছেও রয়েছে পারমাণবিক বোমা:

দুইশো’র বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে ব্রিটেনের কাছে৷ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য এই দেশটি ১৯৫২ সালে প্রথম পারমাণবিক বোমার পরীক্ষা চালায়৷

এগিয়ে আসছে ভারতও:

ভারত প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালায় ১৯৭৪ সালে৷ দেশটির কাছে এখন নব্বইটির বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে৷ ভারত অবশ্য জানিয়ে রেখেছে, তারা আগে কোনও দেশকে আঘাত করবে না।আর যেসব দেশের পারমাণবিক বোমা নেই, সেসব দেশের বিরুদ্ধে ভারতীয় সেনারা এ ধরনের বোমা ব্যবহার করবে না কখনও৷

সবচেয়ে বেশি ঝুকিতে আছে পাকিস্তান:

ইতোমধ্যে তিনবার প্রতিবেশি দেশ ভারতের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়েছে পাকিস্তান৷ তাদের কাছে শতাধিক পারমাণবিক বোমা থাকার দাবি করলেও সঠিক সংখ্যাটা জানা নেই কারও৷ সাম্প্রতিক সময়ে পারমাণবিক বোমার সংখ্যা বাড়িয়েছে দেশটি৷ ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের লড়াই যেকোনও সময় পারমাণবিক যুদ্ধের রূপ নিতে পারে বলে অনেকে আশঙ্কা করেন ৷

ধোঁয়াশা রয়েছে ইজরায়েলের পরমাণু বোমা নিয়ে:

ইজরায়েল অবশ্য তাদের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে তেমন তথ্য জনসমক্ষে প্রকাশ করে না।তবে দেশটিতে আশিটির মতো নিউক্লিয়ার ‘ওয়ারহেড’ আছে বলে ধারণা করা হয়৷

উত্তর কোরিয়া আছে সবার নিচে:

এখন পর্যন্ত প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, উত্তর কোরিয়ার কাছে দশটিরও কম পারমাণবিক বোমা রয়েছে৷ তবে কোরিয়দের নিজেদের এ ধরনের বোমা তৈরির সক্ষমতা রয়েছে কিনা তা সেটা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/

উপরে