আপডেট : ২ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৪:০৮

মর্গের লাশ জীবিত হয়ে মদের আমন্ত্রণ বন্ধুদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মর্গের লাশ জীবিত হয়ে মদের আমন্ত্রণ বন্ধুদের

মৃত্যুর পর মানুষ আর ফিরে আসে না। কিন্তু রাশিয়ার একজন পুরুষ অতিরিক্ত মদপানের কারণে মৃত্যুবরণ করেন। ডাক্তার তাকে পরীক্ষা করে মৃত বলে ঘোষণা করার পর তাকে মর্গে রাখা হয়।

মর্গের রেফ্রিজারেটরে তার লাশ রাখার পর তিনি আবার ফিরে আসেন। অর্থাৎ সে জীবন্ত হয়ে  তার বন্ধুকে ফোন করে এবং তার সাথে মদপান করার জন্য আমন্ত্রণ করেন।

শুনতে অনেক অস্বাভাবিক মনে হলেও রাশিয়ার স্থানীয় একটি সংবাদ মাধ্যমের বরাতে জানা যায়, সেই লোকটি তার বন্ধুর সাথে মদপানের সময় হঠাৎ করে অচেতন হয়ে যান। পড়ে পুলিশকে খবর দেয়া হলে পুলিশ তাকে ডাক্তারের নিকট নিয়ে যাবার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে মর্গে পাঠিয়ে দেন।

এই বিষয়ে ডিটেকটিভ এলেক্সি জানান, ‘সেদিন রাতে মর্গে অনেক লাশ রাখা হয়। শুধু তাকের ভেতরে নয়, মাটিতেও অনেক লাশ ফেলে রাখা হয়। সেখানে এই ব্যক্তির লাশও রাখা হয়। এক সময় এই লোক জেগে উঠে এবং সে বুঝে উঠতে পারেন না, সে কোথায় রয়েছেন। সেখানে অনেক অন্ধকার ও ঠাণ্ডা ছিল।

অপরদিকে তার মাথা অনেক ভার হয়েছিল অ্যালকোহল পান করার ফলে। অন্ধকারের ভেতরে ঠাণ্ডা লাগার ফলে সে দৌড়ে দরজার সামনে চলে যান। কিন্তু দরজা বন্ধ ছিল। তারপর সে তার শরীরের সমস্ত শক্তি দিয়ে দরজায় কড়া নাড়তে থাকে’।

হাসপাতালের একজন সেবিকা কর্তৃপক্ষকে এই বিষয়ে অবগত করেন। তারপর হাসপাতালের ডাক্তার এসে তাকে পর্যবেক্ষণ করে ছেড়ে দেন। কিন্তু সে তখন তার বাসায় যায়নি। সে সোজা বারে চলে যান তার বন্ধুদের সাথে মদপান করার জন্য। সেখানে তার সেই বন্ধু তাকে জীবিত দেখে অজ্ঞান হয়ে যান।

-সূত্র: ইন্ডিয়া টাইম্‌স।

উপরে