আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১৯:৩৭

যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড সংখ্যক যুগল জন্মের হার!

বিডিটাইমস ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড সংখ্যক যুগল জন্মের হার!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যমজ শিশু জন্ম দেয়া মায়ের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। কারণ হিসেবে চিকিৎসকরা শনাক্ত করছে বেশি বয়সে ‘মা' হওয়া এবং প্রজনন চিকিৎসার উন্নতি। সরকারি এক গবেষণা প্রতিবেদনে জানা গেছে, গত ৩ দশকে যমজ শিশুর জন্ম বিস্ময়করভাবে বেড়েছে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম নেয়া ৩০টি শিশুর মধ্যে একজোড়া যমজ শিশুর জন্ম হয়।

বিশ্বের সকল দেশের থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যমজ সন্তান জন্ম হচ্ছে রেকর্ডহারে। প্রতি ১০০০ জন শিশু জন্মের মধ্যে ৩৩.৯ শতাংশ যমজ শিশু জন্মেছে মার্কিন মূলুকে যা ২০১৪ সালের নতুন তথ্যের রেকর্ড। ২০১৩ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যমজ শিশু জন্মানোর হার ছিল ৩৩.৭  এমনই তথ্য প্রকাশ ইউ এস সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশানের।

আশির দশকে যমজ সন্তানের জন্মহার ছিল ১৮.৯ প্রতি হাজারে। সেখানে ৩৬ বছরে এই হার বেড়ে প্রায় দ্বি-গুন হয়েছে যা এই তথ্যে বলা হয়েছে।

অর্থাৎ এই ৩৬ বছরে প্রায় দ্বিগুণ বেড়েছে এই হার। কিন্তু ঠিক কী কারণে এমনটা হল? গবেষকরা দু’রকম সম্ভাবনার কথা বলছেন। প্রথমটি হল, সে দেশের প্রচুর মহিলা এখন ফার্টিলিটি ট্রিটমেন্ট করাচ্ছেন। ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন ট্রিটমেন্টে যমজ সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। তা ছাড়া বহু মহিলাই একটু বেশি বয়সে মা হচ্ছেন।

গবেষণা বলছে, মায়ের বয়স বেশির দিকে হলেও যমজ সন্তানধারণের সম্ভাবনা বেশিই থাকে। তবে যমজ সন্তান হওয়া খারাপ কিছুই নয়। চিন্তার বিষয় তিন বা তার অধিক সংখ্যক সন্তানধারণ। পশুপাখিদের ক্ষেত্রে তা স্বাভাবিক হলেও মানুষের ক্ষেত্রে তা প্রত্যাশিত নয়। সাম্প্রতিক রিপোর্ট বলছে, মার্কিন দেশে আধুনিক ফার্টিলিটি ট্রিটমেন্টের ফলে কমে গিয়েছে তিন বা তার অধিক সংখ্যক সন্তানধারণের ঘটনা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম/  

উপরে