আপডেট : ৯ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:২০

গো-মাংস বিক্রির দায়ে মারধরের পর খাওয়ানো হলো শুকরের মাংস

অনলাইন ডেস্ক
গো-মাংস বিক্রির দায়ে মারধরের পর খাওয়ানো হলো শুকরের মাংস

ভারতের আসাম প্রদেশের বিশ্বনাথ জেলায় গরুর মাংস বিক্রির অভিযোগে মুসলিম এক বৃদ্ধকে বেধড়ক মারধরের পর জোরপূর্বক শুকরের মাংস খাওয়ানো হয়েছে। দেশটির কট্টরপন্থী হিন্দুত্ববাদীদের হাতে মারধরের শিকার ওই ব্যক্তি বর্তমানে আসামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে দেখা যায়, বিশ্বনাথ জেলার বাসিন্দা ৭০ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধকে মারধর করছে একদল উত্তেজিত জনতা। শওকত আলী নামের ওই বৃদ্ধকে এ সময় নানা ধরনের প্রশ্ন করা হয়।

কাদা-পানিতে হাঁটু গেড়ে বসে থাকা শওকত মারধরের শিকার হওয়ার পর উত্তেজিত হিন্দুদের কাছে প্রাণ ভিক্ষা চান। কিন্তু এতে দমে যায়নি উত্তেজিত হিন্দুরা, তাকে জোরপূর্বক শুকরের মাংস খাওয়ানো হয়। আসামের সরকারি একটি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন শওকত।

এ ঘটনায় দু'টি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। বৃদ্ধ ওই মুসলিমকে মারধরের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ইতোমধ্যে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে আসাম পুলিশ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, ওই ভিডিও দেখে অভিযুক্তদের সনাক্ত করছে পুলিশ। ভিডিওতে দেখা যায়, ১৫-২০ জনের একটি দল শওকতকে চারদিক থেকে ঘিরে ধরেছে। তাকে কয়েকটি প্রশ্নও করছে।

একজন ওই বৃদ্ধের কাছে জানতে চান, তিনি বাংলাদেশ থেকে ভারতে এসেছেন কি-না? এছাড়া গো-মাংস বিক্রির লাইসেন্স ও এনআরসিতে তার নাম আছে কি-না তাও জানতে চান উত্তেজিত হিন্দুরা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে