আপডেট : ৬ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:০১

নাগরিকরা চেয়ারে, মেঝেতে প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক
নাগরিকরা চেয়ারে, মেঝেতে প্রধানমন্ত্রী

জনগণই সব শক্তির উৎস। নাগরিকরাই রাষ্ট্রের সবচেয়ে সম্মানিত ব্যক্তি।জনপ্রতিনিধিরা তাদের সেবক।বিষয়টি আর সবার কাছে কাগুজে মনে হলেও কানাডার প্রধানমন্ত্রীর কাছে গুরুত্ব পেয়েছে।আর সে কারণেই তিনি রাষ্ট্রের নাগরিকদের সর্বোচ্চ সম্মান দিয়েছেন।নিজে মেঝেতে নাগরিকদের পায়ের কাছে বসেছেন। আর রাষ্ট্রের সাধারণ নাগরিকদের বসতে দিয়েছেন চেয়ারে।

নাগরিকদের প্রতি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর এই শ্রদ্ধা আলোচিত হচ্ছে সর্বত্র। ট্রুডো মনে করেন, তার দেশের একজন সাধারণ নাগরিক প্রধানমন্ত্রীর চেয়েও মর্যাদাবান। তাই তো তিনি নাগরিকদের পায়ের কাছে বসে তাদের খোঁজ খবর নিয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে কানাডার টরোন্টো শহরের স্কারবোরো নামক স্থানে।জাস্টিন ট্রুডো শনিবার স্কারবোরোতে যান। তারা আসার খবর যেন কেউ তেমন টেরই পাননি। স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে, মেয়র জন টরিকে নিয়ে স্কারবোতে যান। তিনি সেখানে কমিউনিটি হাউজিংয়ের উন্নয়নে বড় ধরনের বিনিয়োগের ঘোষণা দেন।

সেখানকার বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতা ও লিবারেল পার্টির আবুল আজাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন। ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী হাঁটু গেড়ে মাটিতে বসে সঙ্গে কথা বলছেন নাগরিকদের সঙ্গে। আর নাগরিকরা সোফায় বসে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলছেন।

একজন নাগরিক যে দেশের সবচেয়ে সম্মানিত ব্যক্তি তার প্রমাণ দিতেই কানাডার প্রধানমন্ত্রী এমনটি করেন বলে ফেসবুকে অনেকে মন্তব্য করেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে