আপডেট : ১১ জুলাই, ২০১৮ ২০:০০

বিশ্বকাপের ফাইনাল দেখতে যেতে পারছেন না গুহার কিশোররা

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্বকাপের ফাইনাল দেখতে যেতে পারছেন না গুহার কিশোররা

গত ২৩ জুন থাইল্যান্ডের থাম লুয়াং গুহায় আটকে করা ওয়াইল্ড বিয়ার্স বা মু পা নামক ফুটবল দলের ১২ জন সদস্য ও তাদের কোচসহ আটকা পড়েন। দীর্ঘ ১৭ দিন পর গুহার ভেতর থেকে সবাইকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

বিশ্বকাপের মাঝপথে ফুটবল দলটির এমন আটকা পড়ায় সারা বিশ্বের মতো ফিফাও সমবেদনা জানিয়ে তাদেরকে বিশ্বকাপের ফাইনাল দেখার আমন্ত্রণ জানায়। কিন্তু বিশ্বকাপের ফাইনাল দেখতে যাওয়া হচ্ছে না তাদের।

ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো এক বিজ্ঞপ্তিতে মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে গুহায় আটক কিশোরদের ফাইনাল দেখতে আমন্ত্রণ জানায়। কিন্তু জীবিত উদ্ধার হলেও তাদের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, রাশিয়া যাওয়ার মত শারীরিক অবস্থায় নেই তারা।

ইতোমধ্যে এই কিশোরদের শুভকামনা জানিয়েছে বিশ্বের সকল প্রান্তের ফুটবল তারকা এবং ক্লাবগুলো। অনেকে তাদের ক্লাবে যেতে আমন্ত্রণও জানায় এই দলটিকে।

১২ থেকে ১৬ বছর বয়সী এই কিশোর ফুটবল দলে খেলা দেখতে যেতে পারবে কি না, এমন প্রশ্নে থাইল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী সচিব জেসাদা চকেডামরংসুক বলেন, ‘তারা যেতে পারবে না। তাদের আরও কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হবে। তবে, তারা টেলিভিশনের পর্দায় খেলাটি দেখতে পারে।’

এর আগে গুহায় আটকা পড়ার পর গত ২ জুলাই তাদের সন্ধান পান ব্রিটিশ দুই ডুবুরি রিচার্ড স্ট্যানটন ও জন ভলানথেন তাদের খুঁজে পান। তাদের অবস্থান জানার পর ১২ কিশোর ও তাদের কোচকে পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহ করার পাশাপাশি খাবার ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে নিয়মিত। এরপর ৮ জুলাই প্রথম ধাপে ৪ জন, ৯ জুলাই ৪ জন এবং ১০ জুলাই বাকি সবাইকে গুহার ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে