আপডেট : ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:২৯

দাউদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের

অনলাইন ডেস্ক
দাউদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের

সন্ত্রাসবাদী দাউদ ইব্রাহিমের মুম্বাইয়ের সম্পত্তি ভারত সরকারকে বাজেয়াপ্ত করে নিতে নির্দেশ দিল দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। দাউদ ইব্রাহিমের কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি ফিরে পেতে বহু বছর আগে মামলা দায়ের করেছিলেন দাউদের মা আমিনা কাসকার ও তার বোন হাসিনা পার্কার। 

কিন্তু শুক্রবার সেই মামলা খারিজ করে দিয়ে সেই সম্পত্তি সরকারকে নিয়ে নিতে বলেছে ভারতের শীর্ষ আদালত। ইতিমধ্যেই দাউদের মা ও বোন মারা গেছেন। যার ফলে মুম্বাইয়ের নাগপাড়া এলাকায় থাকা দাউদের সম্পত্তি এখন সরকারের হাতে চলে যাবে বলে জানা গেছে।

আদালত সূত্রে খবর, ১৯৮৮ সালে এই সম্পত্তি সিল করে দেওয়া হয়েছিল সরকারের পক্ষ থেকে। ‌কারণ সেখানে অসামাজিক কাজকর্ম হচ্ছিল এই অভিযোগে। তখন সরকারের এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মামলা করা হয়। ১৯৯৩ সালে মুম্বাইয়ের ধারাবাহিক বিস্ফোরণে ২৫৭ জন মানুষ মারা যায়। তখন দেশ ছেড়ে গা ঢাকা দেয় দাউদ। তাই প্রশাসন সেই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৯৯৮ সালের জুলাই মাসে দিল্লি হাইকোর্ট দাউদের মা ও বোনের আবেদন খারিজ করে দিলে তারা সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেন। ২০১২ সালের নভেম্বর মাসে সুপ্রিম কোর্ট বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে। সেখানে দেখা যায়, দাউদের মা ও বোনের নামে সাতটি করে বাড়ি রয়েছে। আর যে সম্পত্তি তারা নিতে চাইছেন তার কোনও আইনগত নথি তাদের কাছে নেই। 

১৯৯৩ সালে মুম্বাই বিস্ফোরণের পর দাউদ পাকিস্তানে আশ্রয় নেয়। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ দাউদকে বিশ্ব সন্ত্রাসবাদীর তকমা দেয়। গত বছর দাউদের বহু হোটেল ও গেস্ট হাউস নিলাম করে দেওয়া হয়। এবার দাউদের বাকি সম্পত্তি ভারত সরকারকে বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয় দেশটির শীর্ষ আদালত। ‌‌
 

বিডিটাইমস৩৬৫/জামি

উপরে