আপডেট : ১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ২০:৪৯

কাতারকে উৎখাতের চেষ্টা করছে সৌদি জোট

অনলাইন ডেস্ক
কাতারকে উৎখাতের চেষ্টা করছে সৌদি জোট

সৌদি আরব কাতার সরকারকে উৎখাত করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছে দোহা। কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল থানি এ অভিযোগ করেছেন। খবর আলজাজিরার।

মার্কিন টিভি নেটওয়ার্ক সিএনবিসিকে তিনি বলেন,  কাতারের নেতৃত্বকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে সৌদি আরব।

শেখ মোহাম্মদ থানি বলেন, 'আমরা দেখছি, সৌদি সরকারি কর্মকর্তারা সরকার পরিবর্তনের কথা বলছেন... আমরা দেখছি একটি দেশ উপজাতীয় অন্ধকার যুগে ফিরে যেতে চায়। কাতারে উপজাতীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করে চাপ বাড়াতে চায় তারা।'

গত ৫ জুন কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করে সৌদি আরব, মিসর, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন।  কাতার সন্ত্রাসবাদে মদদ দেয় বলে অভিযোগ তাদের।

তবে দোহা এসব অভিযোগ দৃঢ়ভাবে অস্বীকার করে আসছে। পাশাপাশি রিয়াদের কাছে নতি স্বীকার করবে না বলেও স্পষ্ট করে জানিয়েছে।

শেখ মোহাম্মদ থানি বলেন, কাতারের ওপর অবরোধকারী দেশগুলো সন্ত্রাসবাদের উচ্ছেদ চায় না। তাদের পদক্ষেপের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদে অর্থায়নের কোনো সম্পর্ক নেই। তারা বরং কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস উসকে দিচ্ছে, কাতারে সরকার পরিবর্তন চাচ্ছে।

থানি আরও বলেন, কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করায় আইএসের মতো সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অভিযান বাধাগ্রস্ত হয়েছে। কাতারে রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় সামরিক ঘাঁটি। সেখানে থেকে আইএসবিরোধী অভিযান চালানো হয়। কিন্তু কাতারের বিমান অবরোধকারী দেশগুলোর আকাশসীমায় নিষিদ্ধ থাকায় এ ধরনের অভিযান ব্যাহত  হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কাতারভিত্তিক টিভি আলজাজিরায় ইসলামপন্থীদের বক্তব্য প্রচার এবং ইরান ও তুরস্কের সঙ্গে কাতারের কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে সৌদি জোটের সঙ্গে দোহার বিরোধ তুঙ্গে ওঠে।

এর জের ধরে সৌদি জোট মধ্যপ্রাচ্যের ছোট্ট দেশটির ওপর অবরোধ আরোপ করে। তবে কাতার এই অবরোধের ধাক্কা ভালোভাবেই কাটিয়ে উঠতে পেরেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে