আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৯:৪৩

উৎফুল্ল জনতার সামনেই ফাঁসিতে ঝুলানো হল ধর্ষককে!

আন্তর্জাতিক
উৎফুল্ল জনতার সামনেই ফাঁসিতে ঝুলানো হল ধর্ষককে!

সাত বছরের মেয়েকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ইরানে উৎফুল্ল জনতার সামনে একজনকে ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) সাজাপ্রাপ্ত ৪২ বছরের ইসমাইল জাফরজাদেহ'র মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের ভিডিও রাষ্ট্র পরিচালিত সম্প্রচার মাধ্যমের ওয়েবসাইটেও শেয়ার করা হয়েছে।

আরদেবিল প্রদেশের উত্তর-পশ্চিমের ছোট শহর পারসাবাদে ধর্ষক-খুনি ইসমাইলের ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

আরদেবিলের প্রসিকিউটর নাসের আতাবাতি সাংবাদিকদের জানান, সব নাগরিকের নিরাপত্তার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার জন্য জনসম্মুখে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। যাতে অন্যরা বিকারগ্রস্ত মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে পারে।

চলতি বছরের ১৯ জুন ফেরিওয়ালা বাবার সঙ্গে হাঁটার সময় একটু পেছনে পড়ে নিখোঁজ হয়ে যায় সাত বছরের আতিনা আসলানি। সেই ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক তৎপরতা চলেছে।

প্রসিকিউটর নাসের আতাবাতি আরো জানান, ইসমাইল তাকে ধর্ষণের পরপরই হত্যা করে তার বাড়ির গ্যারেজে মরদেহ রেখে দেয়। সেখান থেকে পুলিশ আতিনা আসলানির মরদেহ উদ্ধার করে।

প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি এই ঘটনাকে ভয়ঙ্কর হিসেবে উল্লেখ করে দ্রুত বিচারের আহ্বান জানিয়েছিলেন। ইসমাইলকে গ্রেপ্তারের এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে আগস্টের শেষের দিকে মামলার শুনানি শুরু হয়। ১১ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্ট তার ফাঁসির রায় দেন।

পারসাবাদের পাবলিক প্রসিকিউটর আবদুল্লাহ তাবেতাবেয়ী পরে ঘোষণা দেন যে, দুই বছর আগে এক নারীকেও হত্যা করেছিলেন ইসমাইল। ওই নারীর মরদেহ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে