আপডেট : ১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১৫:৫৩

চলন্ত ট্রেনে সঙ্গমে মাতল তরুণ-তরুণী, ভাইরাল ভিডিও

অনলাইন ডেস্ক
চলন্ত ট্রেনে সঙ্গমে মাতল তরুণ-তরুণী, ভাইরাল ভিডিও

ব্যস্ত সময়ে কিংবা তাড়াহুড়োয় গন্তব্যে পৌঁছতে মেট্রোর জুড়ি মেলা ভার। সেটা কলকাতা হোক কিংবা লন্ডন। কিন্তু মেট্রোয় উঠেই যদি দেখেন সামনের আসনে সঙ্গমরত অবস্থায় মত্ত যুগল, তাহলে? সম্প্রতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে নিউইয়র্কের মেট্রোতে। যেখানে জনসমক্ষেই সঙ্গমে লিপ্ত হয়েছেন এক তরুণ ও তরুণী। আশপাশে যে আরও যাত্রী থাকতে পারে সেদিকে কোনও হুঁশ নেই। এর মধ্যেই এক যাত্রী সেটির ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন। আর সেই সৌজন্যেই মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ভিডিওটি। অনেকেই যুবক-যুবতীর সঙ্গমের এই দৃশ্যের সমালোচনা করেছেন।

প্রকাশ্যে বা জনসমক্ষে ভারতে এখনও চুমু খাওয়া কিংবা জড়িয়ে ধরাকেই বাঁকা চোখে দেখা হয়। তবে আমেরিকা বা ইউরোপের মতো প্রগতিশীল দেশে জড়িয়ে ধরা কিংবা চুমু খাওয়া কোনও গর্হিত কাজ নয়। কিন্তু তা বলে জনসমক্ষেই সঙ্গম! এরকমটা কিন্তু সচরাচর দেখা যায় না। আর তাই এই খবরটি শিরোনামে উঠে এসেছে। ওই যুগলের ভিডিওটি তোলা হয়েছে নিউইয়র্কের পাঁচ নম্বর মেট্রো রেলে। ট্রেনটি ব্রঙ্কস থেকে আসছিল। পরিচয় জানা গেলেও মনে করা হচ্ছে, ওই যুবক-যুবতী দু’জনেই নিউইয়র্ক ইয়াঙ্কি দলের সমর্থক। বোস্টন রেড সকস দলের বিরুদ্ধে নিজেদের দলের বেসবল ম্যাচ দেখতে গিয়েছিলেন তাঁরা। কারণ ভিডিওটিতে দু’জনের পরনেই ছিল ইয়াঙ্কিসের জার্সি। ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, প্রেমিকের কোলে বসে রয়েছেন যুবতী এবং দু’জনেই সঙ্গমে লিপ্ত। অপরদিকে, বহুদূরে এক যাত্রী বসে রয়েছেন। তাঁর কানে হেডফোন। অপর এক যাত্রী, যিনি কিনা যুবক-যুবতীর সবচেয়ে কাছে রয়েছেন তিনি তো বসার জায়গাতে ঘুমিয়েই পড়েছেন। নাকি লজ্জায় চোখ বুজেছেন!

‘সাবওয়ে ক্রিয়েচার্স’ নামে একটি ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে। এরপর থেকেই সেটি নেটদুনিয়ায় আলোড়ন ফেলে। অনেকেই নানা ধরনের মন্তব্যও করেছেন। কেউ মজা করেছেন। কেউ আবার সমালোচনা করেছেন যিনি ভিডিওটি তুলেছেন। তবে অনেকেই সেটি তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করেছেন।

আপনিও দেখে নিন সেই ভিডিওটি:

উপরে