আপডেট : ২৬ মার্চ, ২০১৬ ২০:২৩

ইস্টারে গুলি করে ১০ হাজার খরগোশ হত্যা!

বিডিটাইমস ডেস্ক
ইস্টারে গুলি করে ১০ হাজার খরগোশ হত্যা!

পালন করতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন পন্থা নেয়। কিন্তু এই উৎসবে নিউজিল্যান্ডে প্রচলিত রয়েছে এক নৃশংস প্রথা। লাইন দিয়ে দাঁড় করিয়ে গুলি করে মারা হয় খরগোশদের। এ বছরের ইস্টারে প্রায় ৩০০ জন ১০ হাজার খরগোশকে গুলি করে মেরেছে বলে জানা গিয়েছে। এই অনুষ্ঠানের নাম ‘বানি হান্ট’। এর মাধ্যমেই এই দ্বীপরাষ্ট্রে সূচনা হয় গুড ফ্রাইডের।

একদিনে এই ১০ হাজার খরগোশকে মারা হয়েছে। গত ২৫ বছর ধরে চলে আসছে এই উৎসব। সারারাত ধরে চলে এই উৎসব। খরগোশ বিভিন্ন সবজি খেয়ে ফেলায় চাষের অনেক ক্ষতি হয় বলেই নাকি এই প্রথার শুরু।

যদিও অনেক পশুপ্রেমী সংগঠনের তরফ থেকে বারংবার এই উৎসবের বিরোধিতা করা হয়েছে, কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। অনুষ্ঠানের আয়োজকরা জানিয়েছেন, এবার ইস্টারে আবহাওয়া খুব ভালো ছিল। মোট ২৭টি টিম অংশগ্রহণ করেছিল। তাদের মধ্যে ৮৮৯টি খরগোশ মেরে প্রথম হয়েছে টিম ডাউন সাউথ। এক বছর তো ৩০ হাজার খরগোশ মারা হয়েছিল। সেটা ছিল সব থেকে বড় ইস্টারের সেলিব্রেশন।

মৃত খরগোশদের বেশিরভাগের হাড়গোড় সার হিসেবে বিক্রি করা হবে। আর কিছু খরগোশ বাড়ি নিয়ে যাওয়া হবে খাওয়ার জন্য।

একই রকম নৃশংস প্রথা চালু আছে খোদ গ্রেট ব্রিটেনে৷ সেখানকার রাজপরিবার থেকে শুরু করে সমস্ত অভিজাত পরিবার অংশ নেয় ফক্স হান্টিংয়ে৷অজস্র পশুপ্রেমী সংগঠন এ নিয়ে প্রতিবাদ করেও, এমনকী খোদ রাষ্ট্রসংঘে আবেদন করেও কোনও ফল পাননি৷ তারই কিউয়ি সংস্করণ বলা যেতে পারে এই ‘বানি হান্ট’-কে৷

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে