আপডেট : ২৫ মার্চ, ২০১৬ ০৮:৪৭

দিল্লি, পাঞ্জাব ও আসামে হাই এলার্ট

জঙ্গি হামলার আশঙ্কা
বিডিটাইমস ডেস্ক
দিল্লি, পাঞ্জাব ও আসামে হাই এলার্ট
জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় ভারতের দিল্লি, পাঞ্জাব ও আসামে হাই এলার্ট জারি করা হয়েছে। এর ফলে সতর্ক অবস্থান নিয়েছে এসব রাজ্যের পুলিশ। গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, ছয় জঙ্গিকে নিয়ে পাঠানকোট সীমান্ত পেরিয়ে ঢুকে পড়েছে পাকিস্তানের এক সাবেক সেনা সদস্য। ভারত যখন হোলি উত্সবে মাতোয়ারা থাকবে তখন হামলা চালানোর ষড়যন্ত্র করছে তারা।
 
দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলির সতর্কবার্তা অনুযায়ী, পাক সেনাবাহিনীর সাবেক সদস্য মোহাম্মদ খুরশিদ আলম ওরফে জাহাঙ্গির  এই জঙ্গি নিয়োগ ও আসামে জিহাদি কার্যকলাপে সমন্বয় করার দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। গোয়েন্দাদের দাবি, সম্প্রতি খুরশিদ ছয় জঙ্গিকে নিয়ে পাঞ্জাবের পাঠানকোট  সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢুকে পড়েছেন। তার লক্ষ্য, হোলিতে দিল্লির হাসপাতাল ও হোটেলে হামলা চালিয়ে নিরীহ মানুষদের হত্যা করা।
 
এই সতর্কবার্তার পরিপ্রেক্ষিতে হোলিতে রাজধানীতে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে আধাসামরিক বাহিনীর আড়াই হাজার সদস্য। গোয়েন্দা সূত্রে জানানো হয়েছে, গত বছরের সেপ্টেম্বরে খুরশিদ আসামের বরপেটা জেলার একটি মাদ্রাসাতেও এসেছিলেন। সেখানে সে পাঁচদিন ছিলেন। পরে ভুটান সীমানা সংলগ্ন বরপেটা জেলায় চলে যান। ধুপড়িতে একটি মাদ্রাসাকে তিনি ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করেছিলেন।
 
নাইজেরিয়া থেকে ভারতের এনআইএকে ফোন করে দাবি করা হয়, ওই ছয় জঙ্গি পাকিস্তানি সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঠাঁই নিয়েছে। তারা সন্ত্রাসী হামলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। এরপরই জারি করা হয়েছে চুড়ান্ত সতর্কতা। উত্তর ভারতের রাজ্যগুলিতে যেখানে হোলির আনন্দে মাতোয়ারা লোকজন, সেখানে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। রাস্তায় রাস্তায় টহল দিচ্ছেন নিরাপত্তা রক্ষীরা। কাউকে সন্দেহজনক মনে হলেই ভালো করে খুঁটিয়ে পরীক্ষা-নীরিক্ষা করা হচ্ছে।
 
সূত্র-ইত্তেফাক
 
বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম
উপরে