আপডেট : ২২ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৩৬

টয়লেটের ফ্লাশে বৃষ্টির পানি ব্যবহারের পরামর্শ

আতিক হাসান
টয়লেটের ফ্লাশে বৃষ্টির পানি ব্যবহারের পরামর্শ

ছোটবেলায় বইতে অনেকেই পড়েছেন পানির অপর নাম জীবন। আমরা এটাও জানি পৃথিবীর চার ভাগের তিন ভাগ জল আর এক ভাগ স্থল। সে বিচারে পৃথিবীতে পানির কোনো অভাব নেই। কিন্তু সত্যি কি তাই। এটা ঠিক যে পৃথিবী জুড়ে অফুরন্ত পানি আছে কিন্তু সে পানির কতটুকু ব্যবহারযোগ্য তা ভাবলে আঁতকে উঠতে হয়। এই সমস্যা সমাধানে বিজ্ঞানীদের চেষ্টার অন্ত নেই। ভবিষ্যতের ভয়ঙ্কর অবস্থার কথা চিন্তা করেই বিজ্ঞানীরা ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহারে অনুৎসাহী করে চলেছে। বৃষ্টির পানি ব্যবহারের ওপর জোর দিয়ে চলেছেন। খাবারযোগ্য পানি টয়লেটে ফ্লাশ করার ব্যাপারে তারা নিরুৎসাহ করছেন। অথচ বিশ্বের সব উন্নত দেশেই খাবারযোগ্য পানি দেদারছে টয়লেটে ব্যবহার করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্টের প্রায় এক তৃতীয়াংশ নাগরিক টয়লেটে খাবার যোগ্য পানি ফ্লাশের কাজে ব্যবহার করছে। ড্রেক্সেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এক তথ্যে জানিয়েছেন, এই অনুশীলন পুরোপুরিই অপচয়। গবেষকরা জানাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়া, নিউইয়র্ক, সিয়েটল আর শিকাগোতে যথেষ্ট পরিমাণ বৃষ্টি হয়। এ সব শহরে বৃষ্টির পানি টয়লেটে ব্যবহারের মাধ্যমে একদিকে যেমন অর্থ সাশ্রয় করা যায় তেমনি প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষা করা যায়। তাদের মতে এসব এলাকার মানুষ যদি বৃষ্টির পানি ব্যবহার করে তাহলে তারা পানির জন্য ব্যয় এক চতুর্থাংশ কমিয়ে আনতে পারে। গবেষক ফ্রাঙ্কো মন্তালতো বলেন, ‘অনেক আগে থেকেই মানুষ বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ করে তা ব্যবহার করে আসছে। তবে আমরা খুব বেশি দিন নয়, হয়তো ২০/৩০ বছর আগে বুঝতে পেরেছি ভূগর্ভস্থ জলাধার রক্ষার জন্য বৃষ্টির পানি একটি নিয়ম মেনে ব্যবহার করা উচিত।’

উপরে