আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৪৪

ভারতে বাবার কাছে সতিত্ব হারালো মেয়ে

শালিসে দোষি মেয়ে! কেন বাধা দেয় নি
ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক
ভারতে বাবার কাছে সতিত্ব হারালো মেয়ে

অবাক হওয়ার ব্যাপারই বটে। শুধু তাই নয়, এমন চিন্তায়ও শরীর ঘৃণায় রি রি করে ওঠার কথা। কিন্তু সময়ের সঙ্গে মানুষের এমনই মানসিক বিকৃতি ঘটেছে যে আজ এমন ঘটনায় কেউ তেমন একটা অবাক হয় না।

ভারতের মহারাষ্ট্রে মেয়েকে ধর্ষন করেছে জম্মদাতা পিতা। মহারাষ্ট্রের সাতারা জেলার পাঁচওয়াদ গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা। ১৩ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষন করেছে তার বাবা। গোপাল সম্প্রদায়ের এ মেয়ের মা গত বছর মারা যাওয়ার পর বাড়িতে বাবা ও মেয়ে থাকতো। শুরুতে সব ঠিক থাকলেও গত চার মাস ধরে বাবা মেয়েকে নিয়মিত ধর্ষন করে আসছে। মেয়েটি গর্ভবতী হওয়ার পর প্রতিবেশীদের চোখে ঘটনা ধরা পড়ে।

এরপর যা হওয়ার তাই হয়েছে।এ ঘটনাও কম মারাত্মক নয়। এ সব অঞ্চলে পঞ্চায়েতই আচার বিচারের মালিক। পঞ্চায়েত বিচার বসিয়ে মেয়েকে দোষী সাব্যস্ত করে। মেয়ের অপরাধ ধর্ষনের সময় সে কেন বাধা দেয়নি? কেন সে এ ঘটনা চেপে রেখেছে? কেন সে এ ঘটনা অন্যদের বলেনি? এ অপরাধে মেয়েকে দড়ি দিয়ে হাত বেঁধে লাঠি দিয়ে প্রচন্ডভাবে মারা হয়েছে। শাস্তি দেওয়া হয়েছে বাবাকেও। এখানেই শেষ নয় তাদের এক ঘরে করা হয়েছে এবং আর্থিক শাস্তিও দেওয়া হয়েছে। মেয়ের বাবাকে ৫ হাজার এবং মেয়েকে ৩ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়েছে।

উপরে