আপডেট : ১৫ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৩৪

গায়ের রঙ ছিলো ফর্সা তাই শিশুকে হত্যা!

গায়ের রঙ ছিলো ফর্সা তাই শিশুকে হত্যা!

তাতেহানে নামে এক জারাওয়া আদিবাসী পাঁচ মাসের এক শিশুকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছেন। শিশুটির মা এক জারাওয়া নারী। তবে তার এখনো বিয়ে হয়নি। হত্যার শিকার ওই শিশুটির গায়ের রঙ ছিলো ফর্সা। আর হয়তো সেজন্যই শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে শিশুটির বাবা ওই গোত্রের বাইরের কেউ হবে।

জারাওয়া আদিবাসীরা ৬০ হাজার বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আন্দামানে আসে। জনবসতি থেকে বিচ্ছিন্ন এ আদিবাসীদের ভারত সরকার বিশেষ সুরক্ষা দিচ্ছে। তাদের জীবন যাত্রায় পুলিশ কোনো বাধা সৃষ্টি করবে না। এখন পর্যন্ত কোনোদিন জারাওয়া আদিবাসীদের গ্রেফতার করা হয়নি। এ হত্যাকাণ্ডের পর জারাওয়াদের এ ঐতিহ্য নষ্ট হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও এখনো কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

এ হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে আদিবাসীরাই সাক্ষ্য দিচ্ছে। দুই আদিবাসী নারী বলেন, ‘হত্যাকাণ্ডের আগে তাদের সংরক্ষিত এলাকায় তাতেহানে নামে এব ব্যক্তিকে মদ পান করতে করতে প্রবেশ করতে দেখেন। শিশুটির মা ঘুমন্ত থাকা অবস্থায় তাতেহানে তার সন্তানকে তুলে নিয়ে যায়। পরে শিশুটিকে পানির মধ্যে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।’

শিশুটির বাবা কে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে শিশুটির মাকে ধর্ষণের অভিযোগে আদিবাসী নয় এমন এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাতেহানেকে মদ সরবরাহের অভিযোগে আরেক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দক্ষিণ আন্দামানের পুলিশ সুপারিনডেনডেন্ট অতুল কুমার ঠাকুর এঘটনার দায়িত্ব পেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘কেউ আইনের উর্ধ্বে নয়। আদিবাসীদের বিশেষ মর্যাদা রয়েছে। আমরা তাদের স্বার্থ রক্ষার জন্য বদ্ধপরিকর।’

আন্দামানের জারাওয়া আদিবাসীরা শূকরের মাংস খায়। তাদের জন্য ৩০০ বর্গমাইল এলাকা সংরক্ষিত রয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে