আপডেট : ৯ মার্চ, ২০১৬ ১১:১৭

মোটরসাইকেল চালিয়ে সংসদে এলেন ভারতের মহিলা সাংসদ!

অনলাইন ডেস্ক
মোটরসাইকেল চালিয়ে সংসদে এলেন ভারতের মহিলা সাংসদ!

সাংসদরা চড়বেন দামী গাড়িতে। পিছনে থাকবে পুলিশ কিংবা তার নেতাকর্মীদের বহর। এমন দৃশ্যই আমাদের চিরচেনা। আর তিনি মহিলা সাংসদ হয়েও সংসদে পৌঁছলেন মোটরসাইকেল চালিয়ে। পার্কিং লটে মরচে-লাল রঙের ভারী বাইকটা অনায়াসে রেখে যখন মাথা থেকে হেলমেট সরাচ্ছেন, ততক্ষণে টেলিভিশন চ্যানেল থেকে সোশ্যাল মিডিয়া, সর্বত্রই ‘ট্রেন্ডিং নিউজ’ হয়ে উঠেছেন ভারতের বিহারের মহিলা সাংসদ রঞ্জিত রঞ্জন এবং তাঁর বাহন হারলি ডেভিডসন বাইক! 

পার্কিং লটের গাদা গাদা বিস্মিত, বিস্ফারিত দৃষ্টির দিকে তাকিয়ে রঞ্জিত বললেন, ‘‘কেন, মহিলারা কি বাইক চালাতে পারেন না?’’ এক সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে সাংসদের জবাব, ‘‘বহুদিন ধরেই বাইক চালাই।...মাঝেমধ্যেই কাছাকাছি ঘুরতেও বেরোই...আমাদের বন্ধুদের এরকম একটা দল আছে।’’

নীল সালোয়ার-কামিজ পরা রঞ্জিত যে বাইক নিয়ে সংসদে গিয়েছিলেন, সেটি হারলি ডেভিডসনের ‘স্ট্রিট বব’ মডেল। ১৬০০সিসি ইঞ্জিনের বাইকটির ওজন ৩০০ কিলোগ্রাম। দাম প্রায় ১১ লক্ষ টাকা। রঞ্জিতের কথায়, ‘‘সম্পূর্ণ নিজের উপার্জনে কিনেছি। নিজেই চালাই।’’ জানালেন, স্বামী তথা বিহারেরই বাহুবলী সাংসদ পাপ্পু যাদবকেও ওই বাইক চালাতে দেন না তিনি। তবে স্ত্রী সারথি হলে পাপ্পু মাঝেমধ্যে সওয়ারি হওয়ার সুযোগ পান!

প্রাক্তন টেনিস খেলোয়াড় (খেলার সূত্রেই পাপ্পুর সঙ্গে তাঁর পরিচয় এবং বিবাহ) রঞ্জিত গত লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের টিকিটে জিতেছেন। সুপৌল কেন্দ্রের এই সাংসদের জয় তাঁর বাইক চালিয়ে সংসদে যাওয়ার মতোই নজরকাড়া। ওই কেন্দ্রে সনিয়া এবং রাহুল গাঁধীর প্রচারে না-যাওয়া সত্ত্বেও রঞ্জিত ‘একা হাতেই’ বিপুল ব্যবধানে জেতেন। 

সূত্র: এবেলা

উপরে