আপডেট : ৫ মার্চ, ২০১৬ ১০:২৫

অর্থ কেলেঙ্কারি: জিজ্ঞাসাবাদে ক্ষুব্ধ ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট

বিডিটাইমস ডেস্ক
অর্থ কেলেঙ্কারি: জিজ্ঞাসাবাদে ক্ষুব্ধ ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রায় ঘণ্টা তিনেক আটক থাকার পর এক বক্তব্যে ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুইস ইনাসিও লুলা ডি সিলভা বলেছেন, তার কাছে মনে হয়েছে তিনি যেনো ‘বন্দী’।

শুধু তাই নয়, তাকে জিজ্ঞাসাবাদের এই দিনটিকে তিনি ‘গণতন্ত্রের জন্য অসম্মানজকন এক দিন’ বলেও উল্লেখ করছেন।

ব্রাজিলের রাষ্ট্রায়ত্ত তেল প্রতিষ্ঠান পেট্রোব্রাস-এর এক অর্থ কেলেঙ্কারিতে মিলিয়ন ডলার ঘুষ এর সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে লুলা ডি সিলভার বাসভবনে অতর্কিত অভিযান চালায় পুলিশ।

শুধু তাই নয়, তার পরিবার ও তার দাতব্য প্রতিষ্ঠান গুলোতেও পুলিশ অভিযান চালায় এবং প্রায় তিন ঘণ্টার জন্য তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

তবে, এই সব অভিযোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার ঘোষণা দিয়েছেন মি. সিলভা।

সাবেক একজন প্রেসিডেন্টকে এভাবে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের ঘটনার সমালোচনা করেছেন দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট দিলমা রৌসেফ।

সাবেক একজন প্রেসিডেন্টকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের ঘটনার সমালোচনা করেছেন দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট দিলমা রৌসেফ।

দিলমা রৌসেফ বলছেন, লুলার মতন একজন সাবেক প্রেসিডেন্ট, যিনি নিজে স্বেচ্ছায় গিয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে বক্তব্য পেশ করে এসেছেন এবং ব্যাখ্যা দিয়ে এসেছেন, তাকে এভাবে ধরে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের ঘটনাটিতে আমি আমরা পূর্ণ অসন্তোষ প্রকাশ করছি।

মি. লুলা বলেছেন যে, তাকে আটক করার কোনো প্রয়োজনই ছিল না। কারণ পুলিশ যদি তার কাছে থেকে কোনো বক্তব্য শুনতে চাইতো তাহলে পুলিশ তাকে জানালে তিনি নিজেই গিয়ে কথা বলে আসতেন।

ব্রাজিলের বামপন্থী রাজনীতির অন্যতম আইকন এবং ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা মি. লুলা ২০১১ সালে প্রেসিডেন্টের অফিস ছাড়েন।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো যে, তিনি প্রায় ৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার তার দাতব্য প্রতিষ্ঠানে ফি এবং দান বা অর্থ সাহায্য হিসেবে নিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে