আপডেট : ৪ মার্চ, ২০১৬ ১৪:৪২

দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে পুজোয় বলি ৮০ তরুণী!

বিডিটাইমস ডেস্ক
দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে পুজোয় বলি ৮০ তরুণী!

দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে পুজোয় বলি দেওয়া হয়েছিলো ৮০ তরুণী! কিছুদিন আগে চীনের প্রত্নতত্ত্ববিদগণ গা শিউরে ওঠার মত এমন তথ্য আবিষ্কার করেছিলেন। দেশটির এক প্রাচীন শহরের ধ্বংসাবশেষের গর্ত থেকে ৮০টির বেশি মাথার খুলি উদ্ধার করেছিলেন তারা। কী কারণে একসঙ্গে বিপুল পরিমাণ মানুষগুলোর এ পরিণতি হয়েছিলো, আর তাদের লিঙ্গ কী ছিল! সেটি এতদিন ছিলো রহস্য।

সম্প্রতি এ সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেছে। সন্ধান পাওয়া এসব মাথার খুলির অধিকাংশই কম বয়সী নারীর বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। চীনের উত্তর-পশ্চিমে শাংঝি প্রদেশে শিয়ামো শহরের ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দুই ভাগে এসব খুলির সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন তারা।

ধারণা করা হচ্ছে, দেবতা তুষ্টিতে প্রায় চার হাজার বছর আগে কম বয়সী সেসব মহিলাকে বলি দেয়া হয়েছিলো।

এ বিষয়ে শাংঝির প্রাদেশিক পুরাতাত্তি্বক প্রতিষ্ঠানের সান ঝউইয়ং বলেন, ‘সন্ধান পাওয়া খুলিগুলো নিওলিথিক যুগ, অর্থাৎ নতুন পাথরের যুগের। তখন গোষ্ঠী সংঘর্ষ বা গণহিংসার মতো ঘটনা প্রায় নৈমিত্তিক ব্যাপার ছিলো। এছাড়া ওই সময় বিভিন্ন `শুভ কাজের` আগে শত্রুপক্ষের বন্দিদের বলি দেয়ার একটা রেওয়াজ ছিলো বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে।’  আর এর অংশ হিসেবেই শিয়ামো শহরে প্রাচীর তৈরির আগে রীতি মেনে সেসব মহিলাকে বলি দেয়া হয়েছিলো বলে ধারণা করছেন সান ঝউইয়ং। আর এরপরই হয়তো বা শহর তৈরির মূল কাজটা শুরু করা হয়।

প্রাথমিকভাবে দুটি গর্তে ২৪টি করে মোট ৪৮টি খুলি পাওয়া গিয়েছিলো। শিয়ামো শহরের পূর্ব ফটকের সামনে গর্ত দুটির সন্ধান পাওয়া যায়। বাকি খুলিগুলো পূর্ব দিকের দেয়াল বরাবর খোঁড়া গর্তে পাওয়া যায়। তবে শিয়ামো শহরে ধ্বংসাবশেষের সন্ধান পাওয়ার বিষয়টি এবারই প্রথম নয়। শহরটিতে প্রথম ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়া যায় ১৯৭৬ সালে।

প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়, সেখানে কোনো ছোট শহর ছিলো। কিন্তু ২০১২ সালে শিয়ামোর ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষা করে জানা যায়, নিওলিথিক যুগের যে কয়টি শহরের অস্তিত্ব বর্তমানে পৃথিবীতে টিকে রয়েছে, সেগুলোর মধ্যে শিয়ামো আয়তনে সবচেয়ে বড়। আজ থেকে প্রায় ৪৩০০ বছর আগে এই শহর তৈরি হয়। তবে এর ৩০০ বছর পর ঝিয়া সাম্রাজ্যের আমলে শহরটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে। প্রসঙ্গত, ২০০৫ সালে দেশটির হুনান প্রদেশে প্রায় দুই হাজার বছর আগেকার একটি নরবলির বেদিও খুঁজে বের করে পুরাতাত্তি্বকদের ওই দল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে