আপডেট : ৪ মার্চ, ২০১৬ ১০:৩৫

পাত্রী খুঁজে না দেয়ায় বাবাকে হত্যা করলো ছেলে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পাত্রী খুঁজে না দেয়ায় বাবাকে হত্যা করলো ছেলে!

পাড়া প্রতিবেশী, আত্মীয় স্বজন, সকলের বিয়ে হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তার বাবা তার জন্য পাত্রী খুঁজে দিতে পারছেন না। সেই রাগে অসুস্থ বাবাকে খুন করে বসল বছর ৪৬-এর এক ব্যক্তি।

বিয়ে না হওয়ায় ডিপ্রেশনে ভুগছিল উত্তর-মধ্য চীনের ইউঝং কাউন্টির বাসিন্দা ওয়েই। বিয়ের প্রবল ইচ্ছা থাকলেও তার অসুস্থ বাবা পাত্রী খুঁজে দিতে অপারগ ছিলেন। তাই বাবাকে বেধড়ক মারধর করে, এমনকী লাথিও মারে সে। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই মৃত্যু হয় ৬৯ বছর বয়সী ওয়েই-এর বাবার। জানা গিয়েছে, বাবাকে মারধর শুরু করলে তার মা আটকাতে যান। কিন্তু তা সত্ত্বেও মারধর থামায়নি ওয়েই। উপায় না দেখে ছোট ছেলেকে ডাকতে যান ওই মহিলা। ফিরে এসে দেখেন মাটিতে লুটিয়ে পড়ে রয়েছেন তাঁর স্বামী।

ঘটনার পর পুলিশ বাড়িতে এলে আরও হিংস্র হয়ে ওঠে অভিযুক্ত। বলে, এই নিয়ে কিছু জিজ্ঞাসাবাদ করলে নিজেকেই শেষ করে দেবে সে। হাতে ছুরি নিয়ে পুলিশকে ভয় দেখায় সে। তাকে বাগে আনতে টিয়ার গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ। তিন ঘন্টার চেষ্টায় তাকে গ্রেপ্তার করা যায়। আপাতত হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে তাকে। সেখানে তার মানসিক চিকিৎসা চলছে।

সূত্রের খবর, অবিবাহিত ওয়েই-এর অভিযোগ, তার মা বাবা খুব ধনী না হওয়ায় তার আর্থিক অবস্থাও মজবুত ছিল না। তাঁরা তাকে বউও খুঁজে দেননি। সেই রাগেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে সে।

সূত্র: এবিপি আনন্দ

উপরে