আপডেট : ২ মার্চ, ২০১৬ ১৭:৫৫

বন্দি নারীকে ধর্ষণের পর রক্তস্নানে বাধ্য করেছে আইএস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বন্দি নারীকে ধর্ষণের পর রক্তস্নানে বাধ্য করেছে আইএস

এবার নৃসংশতার নতুন দৃষ্টান্ত দেখালো আইএস। ইরাকের হার্ডন গ্রামের মেয়েদের একদিন তুলে নিয়ে যায় এই জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা। বন্দিদের মধ্যে ছিল ১৭ বছর বয়সী শিরিন।

দেড় বছর ধরে প্রতিদিন সহ্য করতে হয়েছে নৃশংস অত্যাচার। একের পর এক পুরুষ এসে  দিনভর পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে শিরিনের উপর। কাল যারা তার প্রতিবেশি ছিল তারাই হয়ে গিয়েছিল ধর্ষক। রোজকার ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা পড়লে ভ্রূণ হত্যা করে ফের চালিয়েছে অত্যাচার।

কখনো কখনো ক্রমাগত ধর্ষণে রক্তের মধ্যে ভাসতো শিরিন, তখন তাকে সেই রক্তে গোসল করতে বাধ্য করা হতো। পরে ধর্ষকদেরই একজনই শিরিনকে পালাতে সহযোগিতা করে। মেয়েটি ফিরে আসে নিজের বাড়িতে। আইএসের ডেরা থেকে পালিয়ে এলেও দেড় বছেরের বন্দিজীবনের দুঃসহ সময়টা দুঃস্বপ্ন হয়ে তাকে তাড়া করে বেড়ায় সারাক্ষণ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে 

উপরে