আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:৫৯
বার্গারকিংকে পঁচাতে

বিলবোর্ডে সৃজনশীল যুদ্ধ ম্যগডোনাল্ডের

বিডিটাইমস ডেস্ক
বিলবোর্ডে সৃজনশীল যুদ্ধ ম্যগডোনাল্ডের

ম্যগডোনাল্ড আর বার্গার কিংয়ের বৈরীতা দীর্ঘদিনের পুরনো। কথায় আছে আগে ছিল কোকাকোলা আর পেপসির লড়াই আর এখন ম্যগডোনাল্ড আর বার্গার কিং। পরস্পরকে পঁচাতে তারা এমন সৃজনশীল যুদ্ধে নামে এ কারণে এই যুদ্ধটাকে সমর্থনও করেন মানুষ। সবাই এ যুদ্ধ উপভোগও করেন বেশ। 

সম্প্রতি ফ্রান্সের একটি হাইওয়েতে ম্যগডোনাল্ডের এরকম একটি সাইনবোর্ড হাস্যরস জুগিয়েছে পথচারী আর চলচলরত মানুষদের। ম্যগের ওই বিশাল উচু সাইনবোর্ডের চুড়ায় একটা কথা লেখা আছে । আর তা হলো ‘বার্গার কিং -২৫৮ কিলমিটার পরে। এত ভালো কী হয়েছে বার্গার কিংয়ের? আবার ম্যগের বিলবোর্ডে বার্গার কিংয়ের বিজ্ঞাপন কেন? প্রশ্নগুলো উঠতেই পারে সঙ্গত কারণে। জবাব পাবেন পাশেই ম্যগের ছোট একটা সাইনবোর্ডে। তাতে লেখা ‘ম্যগডোনাল্ড’ মাত্র ৫ কিলোমিটার পর। এভাবেই উচু নিচু সাইনবোর্ড দিয়ে নিজেদের সৃজনশীলতা প্রকাশ করেছে ম্যগডোনাল্ড। এখানেই সৃজনের শেষ নয়। বার্গারের সাইনবোর্ডটি এত উচুতে দেয়া হয়েছে যা  সাধারনত গাড়িতে চলা অবস্থায় দেখা যায় না। আর এদিয়ে বোঝানো হয়েছে আসলেই বার্গার কিং অনেক অনেক দূরে। আর ম্যগের সাইনবোর্ডটি মানুষের স্বাভাবিক উচ্চতায় দেয়া হয়েছে যা দেখতে সমস্যা হয় না কারোই। 

অতীতেও বিজ্ঞাপন নিয়ে একধরণের সৃজনশীল যুদ্ধ দেখা যেত কোকাকোলা আর পেপসির মধ্যে। বাড়াবাড়ির কোন কোন পর্যায়ে পুরো বোয়িং বিমানকেও ডিজিটাল সাইনে ঢেকে দিতো এ দুটি কম্পানি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে 

উপরে