আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৮:৩৪

আমার পার্কিংয়ে সেক্স চলবেনা..

বিডিটাইমস ডেস্ক
আমার পার্কিংয়ে সেক্স চলবেনা..

ইংল্যান্ডের উত্তর দিকের এলাকা রোচডেলের ‘থ্রি এরোজ ইন্’ নামে মদের দোকানটির মালকিন লুইস ফেলোঁন। অনেক প্রেমিকজোড়াই তার দোকানের পার্কিং লট’টিকে বেছে নিতো সেক্স করার জন্য। আর এমন অত্যাচারে রীতিমতো অতিষ্ঠ ছিলেন লুইস।

গত বুধবার ২ সন্তানের জননী লুইস তার দোকানের ফেসবুক পেজে এক ব্যাক্তির একটি আন্ডার ওয়্যারের ছবি পোস্ট করেন। ছোট এই কাপড়টি তিনি তার পার্কিংলটেই পারিত্যাক্ত অবস্থায় পান। আন্ডারওয়্যারের ছবি পোস্ট করেই তিনি ক্ষান্ত হননি; হুঁশিয়ারীও উচ্চারণ করেন। তিনি এই অচ্ছুত মিলনকামীদের ডগারস সম্বোধন করে বলেন, ‘দয়া করে আপনারা আমার লাগানো সিসিক্যামেরার প্রতি একটু সচেতন হোন। এটা অনেক বাজে ব্যপার যে এসব ফুটেজ আমাকে দেখতে হচ্ছে।’

লুইস সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা ভিডিও ফাঁস করে দেয়ারও হুঁশিয়ারী দেন।

তিনি আরও বলেন, দয়া করে এসব ময়লা আন্ডারওয়্যার আমার ত্রিসীমানায় ফেলে যাবেন না।

লুইস আক্ষেপ করে জানান, আগের রাতের সেক্সে ব্যাবহৃত নানা নোংরা জিনিস তাকে প্রতিদিন সকালেই ঝাড়ু দিয়ে পরিষ্কার করতে হয়। এসব নোংরা জিনিসের মধ্যে রয়েছে, কনডম, আন্ডারওয়্যার, টিস্যু পেপার ইত্যাদি।

ম্যানচেষ্টার ইভনিং নিউজকে তিনি জানান, এধরণের কাজে তিনি খুবই বিরক্ত। তা ছাড়া তার দুটি ছোট ছোট বাচ্চাও রয়েছে। তাই বাধ্য হয়েই তাকে এগুলো পরিষ্কার করতে হয়।

তিনি আরও জানান, এ ধরণের বেহায়াপনা তার এখানে প্রতিরাতেই হচ্ছে। আর এসব বেহায়ার মধ্যে তার কিছু কাস্টমারও রয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে