আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:০৯

সিরিয়ায় সন্তানকেও বেচতে চান বুভুক্ষু ‘মা’! বিকোচ্ছেন শরীরও

বিডিটাইমস ডেস্ক
সিরিয়ায় সন্তানকেও বেচতে চান বুভুক্ষু ‘মা’! বিকোচ্ছেন শরীরও

‘যুদ্ধ’ একটি দেশকে কতটা নির্মম পরিনতির দিকে ঠেলে দিতে পারে; বর্তমান সিরিয়া তার প্রমাণ। দেশটির বিভিন্ন প্রদেশে ইতোমধ্যেই দুর্ভিক্ষ হানা দিয়েছে। কিছু কিছু এলাকার পরিস্থিতি এতটাই বাজে রূপ নিয়েছে যে, সেখানকার মানুষ ঘাস লতা-পাতা খেযে কোনরকমে বেঁচে আছে। কারণ ওইসব এলাকার কুকুর বিড়াল গুলোকে অনেক আগেই খেয়ে শেষ করে ফেলেছে বুভুক্ষারা।

ভয়ঙ্কর দূরবস্থা পুরো সিরিয়াতেই। খাবার নেই, জল নেই, নেই ন্যূনতম ওষুধও। কঙ্কালসার সদ্যোজাত শিশুদের দেখে চমকে যাবে যে কেউ। যেখানে মাত্র দু’কেজি চালের আশায় বুকের সন্তানকে বেচে দিতে চান মা। তবু খদ্দেরও মেলে না।

এক টুকরো রুটির বিনিময়ে অনেক নারীই বিকিয়ে দিচ্ছে তাদের শরীর।

বছর খানেক আগেও দেশটার এই হাল ছিল না। সিরিয়ায় এখন গৃহযুদ্ধ চলছে। দেশটির বিস্তীর্ণ অংশের দখল নিতে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) মরিয়া। বন্দুকের চোখরাঙানি তো ছিলই, এবার তার সঙ্গে জুড়ল খিদের লড়াই।

সিরিয়ার সপ্তম বৃহত্তম শহর ডেয়ার এজ্‌র। তেল উৎপাদনে প্রথম সারিতে ছিল যে শহর, এখন সেখানে শুধুই হাহাকার। প্রত্যেক দিন একের পর এক শিশু অনাহারে, অপুষ্টিতে ঢলে পড়ছে মৃত্যুর কোলে। একই অবস্থা আর এক শহর মাদায়ার।

কিছু দিন আগেও পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় এই পাহাড়ি শহরে এখন শুধুই হাড়গিলে মানুষের সারি। রাষ্ট্রপুঞ্জের সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান বলছে, সিরিয়ার এই সব এলাকায় প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাচ্ছেন মাত্র এক শতাংশ মানুষ! সব থেকে খারাপ অবস্থা শিশু ও বৃদ্ধদের। খাবারের অভাবে মরছে শিশু আর ওষুধের অভাবে মারা যাচ্ছেন বয়স্করা।

বাজারে চড়া দামে খাবার বিকোচ্ছে অথচ রুটি-রুজির অভাবে সাধারণ মানুষের পকেট একেবারেই খালি। আইএসের হাতে বন্দি সিরিয়া এখন অচল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে