আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১০:২৪

সিরিয়ায় হামলা চালাতে তুরস্কে সৌদি বিমান

বিডিটাইমস ডেস্ক
সিরিয়ায় হামলা চালাতে তুরস্কে সৌদি বিমান

সিরিয়ায় অভিযান চালানোর প্রস্তুতি নিতে সৌদি বিমান বাহিনীর দুই ডজনেরও বেশি সদস্য ও সামরিক সরঞ্জাম নিয়ে দুটি কার্গো বিমান তুরস্কে পৌঁছেছে। তুরস্কের গণমাধ্যম বৃহস্পতিবার এ খবর দিয়েছে। এসব গণমাধ্যম বলেছে, সৌদি আরবের প্রায় ৩০ জন সেনা কর্মকর্তা ও সামরিক সরঞ্জাম নিয়ে দুটি সি-১৩০ কার্গো বিমান তুরস্কের ইনজারলিক বিমানঘাঁটিতে পৌঁছেছে।

ধারণা করা হচ্ছে- এসব সেনা কর্মকর্তা তুরস্কের বিমানঘাঁটিতে সৌদি আরবের জঙ্গিবিমান মোতায়েনের ক্ষেত্র প্রস্তুত করবেন। শিগগিরি এসব বিমান তুরস্কে পৌঁছানোর কথা।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু বলেছেন, সৌদি আরবের জঙ্গিবিমানগুলো বৃহস্পতিবার দিন শেষে কিংবা শুক্রবার ইনজারলিক বিমানঘাঁটিতে এসে পৌঁছাবে। এসব বিমান সিরিয়ার উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল বা দায়েশের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নেবে বলে তিনি দাবি করেন।

তবে কোনো কোনো গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এরইমধ্যে সৌদি জঙ্গিবিমান তুরস্কের ওই বিমানঘাঁটিতে মোতায়েন করা হয়ে গেছে। এই প্রথম সৌদি আরব তুরস্কে যুদ্ধবিমান মোতায়েন করছে। ইনজারলিক বিমানঘাঁটিতে আমেরিকা, ব্রিটেন ও ফ্রান্সের বিমান আগে থেকেই মোতায়েন করা রয়েছে। এসব বিমান ইরাক ও সিরিয়ায় দায়েশের বিরুদ্ধে হামলা চালাচ্ছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

তবে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর হামলার কোনো নমুনা আজ পর্যন্ত পাওয়া যায় নি বরং বিভিন্ন সময় বেসামরিক ও সামরিক লোক হামলার শিকার হয়েছে বলে বহুবার খবর বের হয়েছে।
এদিকে, আঞ্চলিক কোনো কোনো ইস্যুতে সৌদি আরব ও তুরস্কের মাঝে মতভিন্নতা থাকলেও সিরিয়ার সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার বিষয়ে মতৈক্য রয়েছে। দুটি দেশই বার বার বলেছে, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নিতেই হবে। অথচ এ দুটি দেশের বিরুদ্ধে বহু প্রমাণ রয়েছে যে, তারা সিরিয়ায় তৎপর সন্ত্রাসীদেরকে সব ধরনের সমর্থন ও সহযোগিতা দিচ্ছে।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে