আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২১:০১

সৌদির বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার আহ্বান ইইউ’র

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক
সৌদির বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার আহ্বান ইইউ’র
সৌদি আরবের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার আহ্বান জানিয়ে আজ (২৫ ফেব্রুয়ারি) একটি প্রস্তাব গ্রহণ করেছে ইউরোপীয় সংসদ। প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যখন রিয়াদ বর্বরোচিত আগ্রাসন অব্যাহত রেখেছে তখন এ প্রস্তাব গ্রহণ করল ইউরোপীয় ইউনিয়ন।
ইউরোপীয় সংসদ সদস্যদের ৩৫৯ জন প্রস্তাবের পক্ষে এবং ২১২ জন বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। এ ছাড়া, ৩১ সদস্য ভোট দানে বিরত থেকেছেন। ইয়েমেনে নির্বিচারে বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে বোমা বর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত রিয়াদের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর প্রতি প্রস্তাবে আহ্বান জানানো হয়েছে।
প্রস্তাব গ্রহণ করার পর গ্রিন/ ইউরোপীয়ান ফ্রি অ্যালায়েন্সের মুখপাত্র অ্যালিন স্মিথ বলেন, রিয়াদের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বানের মধ্য দিয়ে সৌদি বিমান বাহিনীর ইয়েমেন যুদ্ধ নিয়ে ব্যাপক ক্ষোভই ফুটে উঠেছে।
তিনি আরো বলেন, ব্রিটেন এবং ফ্রান্সের শীর্ষ অস্ত্র ক্রেতা হলো সৌদি আরব। আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে এ সব অস্ত্র ইয়েমেনে ব্যবহারের তথ্য-প্রমাণ রয়েছে বলেও জানান তিনি। এ ছাড়া, তিনি বলেন, সৌদি আগ্রাসন চালানোর পর ইয়েমেনে হাজার হাজার নিরীহ বেসামরিক মানুষ মারা গেছে।
ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রস্তুত অস্ত্র সৌদিতে রফতানি করার বিশ্বাসযোগ্য তথ্যপ্রমাণ রয়েছে বলে উল্লেখ করেন ইইউ’র পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক ফেডারিক মোগিরিনি। সৌদি আরব বিরোধী প্রস্তাব গ্রহণ থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে বিরত রাখার লক্ষ্যে ব্রাসেলসের সৌদি রাষ্ট্রদূত ব্যাপক চাপ সৃষ্টি সত্ত্বেও এ প্রস্তাব গৃহীত হলো।
ইউরোপীয় সংসদের প্রস্তাব মানতে ইইউভুক্ত দেশগুলো বাধ্য না থাকলেও এটি সৌদি আরবের বিরুদ্ধে বেশ চাপ সৃষ্টি করবে।
 
সূত্র : আইআরআইবি
উপরে