আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০৯:৩৫

হাত জীবাণুমুক্ত করার জেল ফলের রসের সাথে খেয়ে নেশা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
হাত জীবাণুমুক্ত করার জেল ফলের রসের সাথে খেয়ে নেশা

সুইডেনের পশ্চিম ভার্মল্যান্ড প্রদেশের কার্লসকোগা শহরে সাম্প্রতিক সময়ে কমবয়সীদের মধ্যে হাত জীবাণুমুক্ত করার অ্যালকোহলযুক্ত জেল খাওয়ার প্রবণতা এতটাই বেড়ে গেছে যে, পুলিশ এইসব ব্যাকটেরিয়া নাশকারী জেল যাতে সবার হাতের নাগালে না পৌঁছায় সে বিষয়ে ফার্মেসিগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছে।

সরকারি একজন মুখপাত্র স্টেফান সান্ড জানান, “তরুণ-তরুণীরা অ্যালকোহলের বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসছে এবং জানাচ্ছে যে, তারা অ্যালকো-জেল বা হাত ধোয়ার বিশেষ জীবাণুনাশক পান করেছে”।

মিস্টার সান্ড বলছেন, “তরুণ-তরুণীরা একে সুস্বাদু করতে ফলের রসের সাতে এইসব জীবাণুনাশক জেল মিশিয়ে পান করছে”।

তিনি সরকারি রেডিওতে বলেন, ফার্মেসিগুলোর কাউন্টার থেকে এসব জেল সরিয়ে নেয়ার বিষয়ে তাদের কোনও মাথাব্যথা নেই। কিন্তু হাত জীবাণুমুক্ত করার এসব জেলে ৮৫ শতাংশ পর্যন্ত অ্যালকোহল পাওয়া যায়”।

সুইডেনে সরকারি নিয়ম অনুসারে, অ্যালকোহল জাতীয় কোনও পানীয় কিনতে হলে অন্তত ২০ বছর বয়সী হতে হয়। কিন্তু মদের দোকান বা রেস্তোরাগুলোতে আঠারো বছর বয়সীদের কাছেও এসব বিক্রি করা হচ্ছে।

অন্য কোনও কোনও দেশেও হ্যান্ড স্যানিটাইজার নেশার দ্রব্য হিসেবে ব্যবহার করতে শোনা যায়। ব্রিটেনের কিছু হাসপাতালে আগতদের দ্বারা এধরনের বোতল খোয়া যাওয়ার খবরও রয়েছে। এমনকি শিশুদের কাছেও এগুলো আকর্ষণীয় হয়ে উঠছে।

গত সেপ্টেম্বরেই আমেরিকার হাসপাতালে স্যানিটাইজার গিলে ফেলার পর ছয় বছর বয়সী এক শিশুকে নিয়ে আসা হয়। তার কাছে নাকি সেই স্বাদ স্ট্রবেরির মত মনে হয়েছিল।

সূত্র: বিবিসি

উপরে