আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:৫৮

বলিভিয়ায় গণভোটে অবসান ঘটছে ‘মোরালেস’ যুগের!

বিডিটাইমস ডেস্ক
বলিভিয়ায় গণভোটে অবসান ঘটছে ‘মোরালেস’ যুগের!

চতুর্থবারের মতো দেশ চালনার দায়িত্ব নেয়ার ক্ষেত্রে বলিভিয়ার তিনবারের প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসের পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়ালো দেশটিতে অনুষ্ঠিত ‘গণভোট’।

এ ভোটে সামান্য ব্যবধানে হেরে যাচ্ছেন- এমন আভাসই মিলেছে প্রাথমিকভাবে। যদিও এখনো সরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করা হয়নি।

কোকা পাতা উৎপাদনকারী দেশটির প্রথম আদিবাসী আইমারা সম্প্রদায় থেকে আসা প্রেসিডেন্ট মোরালেস ২০০৬ সালে ক্ষমতায় আসেন।

বর্তমান প্রেসিডেন্ট হিসেবে ২০২০ সাল পর্যন্ত তার মেয়াদ রয়েছে। সংবিধান সংশোধনে সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের সমর্থন পেলে তিনি ২০২৫ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে পারতেন।

বিবিসি বলছে, এক জরিপে দেখা যাচ্ছে, দেশটির প্রায় সাড়ে ৫২ শতাংশ মানুষ ইভো মোরালেসের আরও একদফা প্রেসিডেন্ট পদে থাকার জন্য সংবিধান সংশোধনের  যে প্রস্তাব তার বিরোধিতা করেছেন।

অপর এক জরিপে এই হার ৫১ শতাংশ। দুটি জরিপেই তিনি সামান্য ব্যবধানে পিছিয়ে রয়েছেন।

তবে দেশটির উপ-রাষ্ট্রপতি বলছেন, এখনো যেহেতু এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করা হয়নি, তাই মোরালেসের জেতার সম্ভাবনা এখনো উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না।

বলিভিয়ার প্রধান শহর লা পাজে বিরোধীরা গণভোটের সম্ভাব্য ফলাফলে আনন্দ করছে।

তবে তিনি এখনো দেশটির জনপ্রিয় ক্ষমতাধর নেতা। তার নেতৃত্বে বলিভিয়া দুই দশকে অর্থনৈতিকভাবে একটি স্থিতিশীল অবস্থানে পৌঁছেছে।

কিন্তু এরপরও অনেকেই মনে করেন, তার ১৯ বছর ক্ষমতায় থাকা ঠিক হবে না।

দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা দোরিয়া মেদিনা মোরালেসের প্রতি গণভোটের ‘ফলাফলকে স্বীকার’ করে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

যদি গণভোটে মোরালেস হেরেও যান তবু তিনি উত্তরসূরি নির্বাচনের জন্য পর্যাপ্ত সময় হাতে পাবেন। ভবিষ্যতেও তিনি বলিভিয়ার প্রভাবশালী গুরুত্বপূর্ণ নেতা হিসেবেই থাকবেন।

তার নেতৃত্বে সরকারের সমাজতান্ত্রিক নীতি দেশটির দারিদ্র সফলতার সঙ্গে কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে