আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৩:২১

মাটির নিচে পাওয়া গেলো ১শ ২৭ কোটি টাকা মূল্যের ডায়মন্ড!

বিডিটাইমস ডেস্ক
মাটির নিচে পাওয়া গেলো ১শ ২৭ কোটি টাকা মূল্যের ডায়মন্ড!

বিরাট আকারের প্রায় ৪০৪ ক্যারেটের একটি হিরক খন্ড পাওয়া গেছে আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলীয় দেশ এ্যাঙ্গোলায়। হিরকটি লম্বায় প্রায় ৭ সেন্টিমিটার (২.৭ আঞ্চি) বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান একটি খনি খননকারী কোম্পানি।

এ সপ্তাহেই ইনভেস্টরকে দেয়া এক প্রতিবেদনে লুকাপা ডায়মন্ড কোম্পানি জানায়, এই অমূল্য রত্নটি এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় হিরক খন্ড যা এ্যাঙ্গোলায় আবিষ্কৃত হয়েছে।

লুকাপার চ্যায়ারম্যান মাইলস ক্যানেডি অস্ট্রেলিয়ান গণমাধ্যমকে জানায়, হিরাটির মূল্য হতে পারে প্রায় ১৫ মিলিয়ন আমেরিকান ডলার অর্থাৎ প্রায় ১শ’২৭ কোটি টাকা।

অস্ট্রেলিয়ান লুকাপা কোম্পানি, এ্যাঙ্গোলার জাতীয় ডায়মন্ড কোম্পানী এবং একটি বেসরকারী অর্থ লগ্নীকারী সংস্থার পরিচালিত ‘লুলো ডায়মন্ড প্রজেক্ট’র আওতায় খনন কাজে হিরাটি পাওয়া যায়।

লুকাপা কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়, ২০১৫ সালে লুলো প্রজেক্টের খনন কাজ শুরু হওয়ার পর প্রায় ৬০টি বড় আকারের খনি পাওয়া গেছে।

তবে ৩হাজার ১০৬ ক্যারেটের ক্যালিনান হিরক খন্ডটিই এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সবচেয়ে বড় হিরা, যা ১৯০৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় আবিষ্কৃত হয়েছিলো।

সূত্র: নিউজ বাগ

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে