আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১১:২৬

পালিয়ে যাওয়া সেনাদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করলেন আসাদ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পালিয়ে যাওয়া সেনাদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করলেন আসাদ

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ এক ডিক্রি জারি করে সেনাবাহিনী থেকে পালিয়ে যাওয়া সদস্যদের পাশাপাশি সামরিক বাহিনী-সংক্রান্ত সব ধরনের অপরাধীদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছেন।

সিরিয়ার ভেতরে বা বাইরে অবস্থানরত সব সেনা সদস্য এই সাধারণ ক্ষমার আওতায় আসবেন। এ ছাড়া, ২০১৬ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারির আগ পর্যন্ত সেনাবাহিনীতে সংঘটিত অপরাধ এই ক্ষমার আওতায় আসবে। অবশ্য যাদের বিরুদ্ধে এই মুহূর্তে তদন্ত চলছে এবং যারা গ্রেফতার হওয়ার পর পালিয়ে গেছে তাদের ক্ষেত্রে এই ক্ষমা কার্যকর হবে না।

সিরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা সানা আজ এ খবর জানিয়েছে। যেসব সেনা এই ক্ষমা পেতে চান তাদেরকে অবিলম্বে সিরিয়ার কর্তৃপক্ষের কাছে আত্মসমর্পন করতে হবে। যেসব সেনা সিরিয়ার ভেতরে রয়েছে তাদেরকে আত্মসমর্পনের জন্য একমাস এবং যারা দেশের বাইরে রয়েছে তাদেরকে দুই মাসের সময় দেয়া হয়েছে।

লন্ডন-ভিত্তিক সিরিয়ার কথিত মানবাধিকার সংগঠন সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস গত বছর জানিয়েছিল, দেশটিতে ২০১১ সালের মার্চ মাসে বিদেশি মদদপুষ্ট সহিংসতা শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত সেনাবাহিনী থেকে ৭০,০০০ ব্যক্তি পালিয়ে গেছে।

গোড়ার দিকে সেনাবাহিনীর অনেক সদস্য মনে করেছে, শিগগিরই প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের পতন হতে যাচ্ছে এই ভাবনা থেকেই তারা সেনাবাহিনী ছেড়ে পালিয়ে যায়।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী সন্ত্রাসীদের হাতে পতন হওয়া গ্রাম ও শহরগুলো একের পর এক পুনর্দখল করেছে এবং তাদের অগ্রাভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সিরিয়ার সেনাবাহিনী যখন সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে একের পর এক সাফল্য অর্জন করছেন তখন দলছুট সেনাদের প্রতি সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করলেন প্রেসিডেন্ট আসাদ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে