আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১২:০৫

পোপ’র গোপন নারী সঙ্গীর কথা ফাঁস!

বিডিটাইমস ডেস্ক
পোপ’র গোপন নারী সঙ্গীর কথা ফাঁস!

খ্রিস্টানদের সাবেক প্রধান ধর্মীয় নেতা পোপ জন পলের (২য়) একজন গোপন বিবাহিত নারী সঙ্গী ছিলেন। বিবিসিতে প্রকাশিত কয়েকশো চিঠি এবং ছবি এমন স্বাক্ষই দিচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রায় ৩০ বছরেরও অধিক সময় ধরে তিনি এই সম্পর্কটাকে টিকিয়ে রেখেছিলেন।

পোলিশ বংশোদ্ভূত আমেরিকান দার্শনিক এ্যানা তেরেসা টিমিনিয়েচকাকে পাঠানো ওই চিঠিগুলো বেশ কয়েক বছর ধরে জন চক্ষুর আড়াল করে পোল্যান্ডের জাতীয় পাঠাগারে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছিলো।

নথিগুলো পোপের বিরল কিছু তথ্য ফাঁস করে। পোপ জন পল ২০০৫ সালে মৃত্যুবরণ করেন। যদিও পোপ তার কৌমার্য হারিয়েছিলেন কিনা সে বিষয়ে কোন তথ্য উল্লেখ নাই।

বন্ধুত্বটা শুরু হয়েছিলো ১৯৭৩ সালে যখন মিসেস তেরেসা তখনকার ভবিষ্যৎ পোপ কারডিনাল ক্যারল ওজটিলার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। পরবর্তীতে যিনি ক্রাকো’র আর্চবিশপ হয়েছিলেন এবং দর্শন নিয়ে একটি বইও লিখেছিলেন।

কিছুদিন পর তারা পত্রযোগে যোগযোগ শুরু করেন। প্রথম দিকে কারডিনালের চিঠি গুলো গতানুগাতিকই ছিলো। কিন্তু যখন তাদের বন্ধুত্ব গাঢ় হলো তাদের চিঠির ভাষাও অন্তরঙ্গ হতে শুরু করলো।

এই যুগল সিদ্ধান্ত নিলো যে, ভারপ্রাপ্ত কার্ডিনালের বইয়ের সম্প্রসারিত সংস্করণ নিয়ে কাজ করার। তারা অনেকবারই দেখা করেছিলেন। এসব সাক্ষাত কখনো পোপের সহকারীর উপস্থিতিতে আবার কখনো একা একা এবং খুব ঘন ঘন এই সাক্ষাৎ হয়েছিলো।

১৯৭৪ সালে পোপ লিখেছিলেন যে তিনি তেরেসার চারটি চিঠি বাববার পড়ছেন যেগুলো এক মাসের মধ্যেই পাঠানো হয়েছিলো।

প্রকাশিত কয়েকটি ছবিতে দেখা যায়, পোপ বিশ্রাম মুডে আছেন এবং হয়তো দাওয়াত করেছেন তেরেসাকে গ্রাম পরিদর্শনে কিংবা ছুটির দিনগুলোতে স্কি করার জন্য। একটি সম্মিলিত ছবিতে এমনকি ভ্যাটিকানেও তেরেসা পোপের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, ক্যাথলিক নিয়ম অনুযায়ী খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মীয় গুরু পোপকে আজীবন নারী-সঙ্গ বিহীন থাকার বিধান রয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে