আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২১:০১

মোদির পাসপোর্টের বৈবাহিত তথ্য জানতে চেয়েছেন তাঁর স্ত্রী

বিডিটাইমস ডেস্ক
মোদির পাসপোর্টের বৈবাহিত তথ্য জানতে চেয়েছেন তাঁর স্ত্রী
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্ত্রী যশোদাবেনের পাসপোর্টের আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ার পর এবার তার স্বামী মোদির পাসপোর্টের জন্য দেয়া বৈবাহিক তথ্য জানতে চেয়ে আবেদন করেছেন তিনি। গতকাল বুধবার আহমেদাবাদের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে তিনি এ আবেদন জমা দেন।
যশোদাবেন পাসপোর্টের জন্য আবেদন করলে তার কাছে বিয়ের প্রমাণ চায় আঞ্চলিক পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষ। কিন্তু বিয়ের সনদ বা আইনি কাগজ জমা দিতে না পারায় তার পাসপোর্টের আবেদন বাতিল করা হয়। অগত্যা আরটিআই আবেদন করে পাসপোর্টে মোদি বিয়ের কী তথ্য প্রমাণ দিয়েছেন, জানতে চেয়েছেন যশোদাবেন। যশোদাবেন পাসপোর্টের জন্য আবেদনে বলেছিলেন, তিনি দেশের বাইরে তার বন্ধুবান্ধব, পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনদের সাথে দেখা করতে চান।
পাসপোর্টের ব্যাপারে সাহায্য করছেন যশোদাবেনের এমন এক আত্মীয় জানিয়েছেন, যশোদাবেন আরটিআই আবেদনে তার স্বামী মোদির জন্য ইস্যু করা প্রত্যেকটি পাসপোর্টের কপি চেয়েছেন। চেয়েছেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরে ইস্যু করা পাসপোর্টের কপিও। চেয়েছেন পাসপোর্টের জন্য জমা করা মোদির বিভিন্ন ডকুমেন্টের কপিও।
ভাই ও অন্য কিছু স্বজন নিয়ে যশোদাবেন পাসপোর্ট অফিসে যান। সেখানে তিনি ১৫ মিনিটের মতো অবস্থান করেন। তিনি কাজ আছে বললেও বিস্তারিত কিছু জানাতে চাননি।
পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা জেড এ খান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, আমরা তার দরখাস্তের একটি উত্তর ৩০ দিনের মধ্যেই দেব।
গত নভেম্বর মাসে বিয়ের সনদপত্র বা প্রমাণ হিসেবে আইনি কাগজ না থাকায় যশোদাবেনের পাসপোর্টের আবেদন বাতিল করা হয়।
উপরে