আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১০:১৩

মেক্সিকোর কারাগারে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, প্রাণ গেলো ৫২ জনের

বিডিটাইমস ডেস্ক
মেক্সিকোর কারাগারে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, প্রাণ গেলো ৫২ জনের

মেক্সিকোর উত্তরে মন্টেরে শহরের টপো চিকো কারাগারে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ ও অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫২ জনে দাঁড়িয়েছে। দুই দল বন্দির মধ্যকার দ্বন্দ্ব সংঘাতে রূপ নিলে এ ঘটনা ঘটে। প্রায় ৪০ মিনিট ধরে চলা সংঘর্ষে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে ধারালো অস্ত্র, ব্যাট এবং লাঠি ব্যবহার করে বন্দিরা। তবে, এ সময় কোনো কারাবন্দি পালিয়ে যেতে পারেনি বলে দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, বিবদমান দল দুটি বহুদিন ধরে মেক্সিকোর মাদক সাম্রাজ্যের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে। এমনকি জেলখানার ভেতরেও সেই বিরোধ প্রকট  রয়েছে। এর জের ধরে মধ্যরাতে একদল অন্যদলের ওপর ধারালো অস্ত্র, লাঠি আর ব্যাট নিয়ে আক্রমণ চালায়। একপর্যায়ে তাদেরই কেউ জেলখানার একটি গুদামঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে পুরো কারাগার। এ সময় সাধারণ বন্দিরা আতঙ্কিত হয়ে ছোটাছুটি শুরু করে।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বন্দিদের আত্মীয়-স্বজনরা জেলখানার বাইরে ভিড় জমায়। স্বজনদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন মানুষ দীর্ঘ সময় কারাগারের বাইরের রাস্তা অবরোধ করে রাখে। একপর্যায়ে বাইরে নিরাপত্তাকর্মীদের দিকে ইটপাটকেল ছুড়তে শুরু করে তারা। তবে, গভর্নর জেমি রদ্রিগুয়েজ বলছেন, পরিস্থিতি এখন তাঁদের নিয়ন্ত্রণে। তিনি জানান, কেউ জেল থেকে পালায়নি, কিংবা সংঘর্ষে কোনো আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহারও হয়নি। কারাগারের ভেতরে এবং আশপাশের অন্য কারাগারগুলোতে কড়া নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

ঘটনা নিয়ে গঠিত তদন্ত কমিটি জানিয়েছে, আহত আরো ১২ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এদিকে, আর দুই দিন পরই মেক্সিকোতে রাষ্ট্রীয় সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে পোপ ফ্রান্সিসের। এ সময় যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তের কাছে একটি কারাগার পরিদর্শন করার কথা রয়েছে তাঁর। সফরকালে মাদক চোরাচালান-সংক্রান্ত সংঘর্ষ নিয়ে বন্দিদের সঙ্গে পোপের আলোচনা হওয়ারও কথা রয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে