আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২০:৩৩

শরীর নিয়ে পুরুষেরা লিখলে সাহিত্য,নারীরা লিখলে তা পর্নো

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
শরীর নিয়ে পুরুষেরা লিখলে সাহিত্য,নারীরা লিখলে তা পর্নো

সাহিত্যে জারি থাকা পুরুষতান্ত্রিক সংস্কৃতি নিয়ে আবারও সরব হলেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। ভারতে চলমান ‘অসহিষ্ণুতার বিতর্ক’ নিয়েও নিজের মত প্রকাশ করেছেন তিনি। কেরালার এক সাহিত্য উৎসবে যোগ দিয়ে সাহিত্য, মৌলবাদ ও বামপন্থাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন তসলিমা।

কেরালার ওই সাহিত্য উৎসবে তসলিমা বলেন, ‘আপনি (একজন নারী) আপনার শরীর এবং আকাঙ্ক্ষা নিয়ে লেখার অমুমোদন পাবেন না। যখনই একজন নারী তার শরীর নিয়ে লিখবে, তখনই সেটাকে পর্নোগ্রাফি বলা হবে। তবে যখন একজন পুরুষ সেই একই বিষয় নিয়ে লিখবে, তখন তা হয়ে যাবে সাহিত্য।’

ওই সাহিত্য সভায় তসলিমা বলেন, তিনি মনে করেন না যে  ভারত ‘অসহিষ্ণু’ দেশ। সেখানে কিছু ‘অসহিষ্ণু’ গোষ্ঠী থাকতে পারে। তবে দেশের বহু মানুষই একে অপরের বিশ্বাসের প্রতি সহিষ্ণু। তিনি আরও বলেন, ভারতের আইন অসহিষ্ণুতাকে সমর্থন করে না।

ওই সাহিত্য সম্মেলনে ভারতের সেক্যুলারিস্টদেরও সমালোচনা করেন তসলিমা। তিনি মন্তব্য করেন, ভারতীয় সেক্যুলারিস্টরা কেবল হিন্দু মৌলবাদীদের সমালোচনা করেন। তিনি দাবি করেন, কিছু মুসলিম মৌলবাদীর কারণে পশ্চিমবঙ্গ সরকার তাকে সেখানে থাকতে দেননি। ভারতের বামপন্থীরা যথেষ্ট পরিমাণে বামপন্থী নয় বলেও মন্তব্য করেন তসলিমা। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে