আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:১৮

ফেসবুক,স্কাইপ,টুইটারে তালাক জায়েজ: ভারতীয় ইসলামিক ল বোর্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ফেসবুক,স্কাইপ,টুইটারে তালাক জায়েজ: ভারতীয় ইসলামিক ল বোর্ড

'মুসলিম নারীদের ওপর বৈষম্যমূলক আচরণ' করা হয় সুপ্রিম কোর্টের এই পর্যবেক্ষণ বৈধ নয় বলে দাবি করেছে ভারতীয় ইসলামিক আইনি বোর্ডের। 

অল ইন্ডিয়ান মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড এর পক্ষ থেকে মহম্মদ আব্দুল রাহুল একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ আইনত যুক্তিযুক্ত নয়, কারণ মুসলিম আইন ধর্মেরই একটি অঙ্গ। ভারতের সংবিধানের ২৫ নম্বর ধারায় ধর্মের অধিকারকে মৌলিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে”।

তিনি আরও বলেন একজন মুসলিম মহিলা তালাক পাওয়ার পর তিনি দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে পারেন।

তালাকের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, “তালাকের পর মুসলিম মহিলাদের দ্বিতীয় বিয়ে অনুমোদনযোগ্য। তালাকপ্রাপ্তা মহিলা ঘরবন্দি হয়ে থাকবেন, তেমনটা তালাকের রীতিতে কোথাও বলা হয়নি”।

এর সঙ্গে তিনি আরও যুক্ত করেন, স্কাইপ, হোয়াটস অ্যাপ, এসএমএস ও ইমেইলেও তালাক দেওয়া বৈধ। এমনকি ফেসবুকে তালাক দেওয়া হলেও তা ইসলামি আইন অনুযায়ী বৈধ হবে।

তবে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট মনে করে, ইচ্ছাকৃত তালাকে মুসলিম মহিলাদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করা হয়।অযাচিত বৈষম্যের স্বীকার হন মুসলিম মহিলারা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে