আপডেট : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০১:৫০

গাধার দুধ প্রতি লিটার ২৩০০ টাকা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
গাধার দুধ প্রতি লিটার ২৩০০ টাকা!

প্রতি লিটার দুধের দাম দুই হাজার ৩০০ টাকা (দুই হাজার রুপি)! কী ভাবছেন? বাঘের দুধ! না, কথা হচ্ছে গাধার দুধের! এটুকু পড়েই নিশ্চয় ভাবছেন, একে তো গাধা, তার ওপর আবার তার দুধ!  ‘মানুষ গাধা’দেরকে আমরা যতই বকাঝকা করিনা কেন, প্রাণী গাধা কিন্তু অতটা ফেলনা নয়। আর গাধার দুধ, তাও নয়। এর গুণেরও কোন শেষ নেই।

ভারতের কেরালায় প্রতি লিটার গাধার দুধের দাম ২০০০ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে। ভাবছেন, গাঁজাখুরি কোন গল্প। একে তো গাধা, তার উপর আবার তার দুধ!

সেই দুধের কেন এত মহার্ঘ? কারন যে প্রাণিকে নিয়ে এতো মশকরা, হাসাহাসি এবং যার বোধ বুদ্ধি নিয়ে তীব্র ব্যঙ্গ ও উপমার বন্যা বইয়ে দেয় মানুষ, তার দুধ পান করে আপনিও ধরে রাখতে পারবেন যৌবন।

গবেষণায় জানা গেছে, মায়ের দুধের (ব্রেস্ট মিল্ক) যা গুণ, গাধার দুধেরও তাই গুণ। গাধার দুধে লিপিডের পরিমাণ ২ শতাংশের নীচে। ফলে গাধার দুধের প্রোটিন ও ফ্যাট সদ্যোজাত ও শিশুদের জন্য খুবই সহজপাচ্য। এছাড়া গাধার দুধে রয়েছে ইমিউনিটি বর্ধক উপাদানও। রয়েছে বেশকিছু ওষধি গুণও। সবমিলিয়ে রমরমা বাজার গাধার দুধের।

ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের কোয়েম্বাটুরের সুলুরগ্রামে অবাধে বিক্রি হচ্ছে গাধার দুধ। দাম লিটার প্রতি ২০০০ টাকা। স্থানীয় দুধ বিক্রেতা শেখরের দাবি, “আমি এক গ্রাম থেকে আরেক গ্রামে এই দুধের ক্যান নিয়ে ঘুরে বেড়াই। মানুষ মূলত তাদের বাচ্চাদের জন্যই এই দুধ কেনে।”

শেখর আরও জানায়, গাধার দেহ বড় হলেও দুধের পরিমান অত্যন্ত কম। দিনে মাত্র ২৫০ মিলিলিটার দুধ দেয় গাধা। সেই দুধের ১ কাপ বিক্রি হয় ৫০ টাকায়। ফলে দিনে তার প্রায় ৪০০ থেকে ৫০০ রুপি আয় হয় গাধার দুধ বেচে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে