আপডেট : ৩০ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৩:০৫

ভুয়া অভিবাসন কর্মকর্তাকে আটক করেছে বাংলাদেশি শ্রমিকেরা

বিডিটাইমস ডেস্ক
ভুয়া অভিবাসন কর্মকর্তাকে আটক করেছে বাংলাদেশি শ্রমিকেরা

ডাকাতির উদ্দেশ্যে আসা অভিবাসন বিভাগের এক ভুয়া কর্মকর্তাকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। সাথে আসা অন্য ডাকাতরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। মালয়েশিয়ার পেতালিং জয়ায় শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) এ ঘটনা ঘটেছ বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার স্থানীয় পুলিশ।

মালয়েশিয়ার নিউ স্ট্রেইট টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, পেতালিং জয়ার আরা ডামানসারা এলাকায় আরা এপার্টমেন্টে শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৮টায় এ ঘটনা ঘটেছে।

সেখানে একদল ডাকাত অভিবাসন কর্মকর্তার ছদ্মবেশ ধরে বাংলাদেশি শ্রমিকদের কাছে যায় ডাকাতির উদ্দেশ্যে। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় শ্রমিকরা ওই কর্মকর্তাদের চ্যালেঞ্জ করে। শ্রমিকেরা প্রধান কর্মকর্তারূপী ডাকাতকে আটক করতে সক্ষম হলেও অন্যরা পালিয়ে যায়।

ওই ভুয়া অভিবাসন কর্মকর্তা তার সঙ্গীদের নিয়ে বিদেশিদের ভাড়া বাসায় তল্লাশি অভিযানে যায়।

ডিস্ট্রিক্ট পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. জানি চে দিন বলেন, ডাকাতরা নিজেদেরকে অভিবাসন বিষয়ক কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেয়। তারা বাংলাদেশি শ্রমিকদের পাসপোর্ট দেখাতে বলে। ডাকাতদের একজনের সঙ্গে একটি ল্যাপটপ ছিল। সেটি ব্যবহার করে সে বাংলাদেশি শ্রমিকদের ভ্রমণ সংক্রান্ত কাগজপত্র চেক করতে চায়।

কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই তারা বলে যে, ল্যাপটপের ব্যাটারির চার্জ শেষ হয়ে গেছে।এরই মধ্যে যতটুকু যাচাই বাছাই তারা করতে পেরেছেন তাতে অনেক অসঙ্গতি খুঁজে পেয়েছেন।

মো. জানি চে বলেন, এরপরই ডাকাতরা শ্রমিকদের জমানো ১৭০০ রিঙ্গিত, সাতটি মোবাইল ফোন হাতে নেয় এবং সেখান থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

কিন্তু এতে সন্দেহ হয় বাংলাদেশী শ্রমিকদের। তারা সাহস সঞ্চয় করে অভিবাসন কর্মকর্তারূপী ডাকাতদের চ্যালেঞ্জ করে বসে। বাধ্য হয়ে ডাকাতরা পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু তাদের একজন ধরা পড়ে যায়। বাকিরা পালিয়ে যায়।

শ্রমিকরা তাদের অর্থ ও মোবাইল ফোন ফিরে পান। বাংলাদেশি শ্রমিকদের এপার্টমেন্টের নিরাপত্তা কর্মকর্তা ফোন করেন পুলিশ স্টেশনে। পুলিশ গিয়ে আটকে রাখা ভুয়া অভিবাসন কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করে।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

 

উপরে