আপডেট : ২৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৪:০৯

দাসীদের সাথে যৌনমিলনের ফতোয়া জারি করেছে আইএস

বিডিটাইমস ডেস্ক
দাসীদের সাথে যৌনমিলনের ফতোয়া জারি করেছে আইএস

দাসীদের সাথে যৌনমিলন করতে পারবেন ইসলামিক স্টেট (আইএস) সদস্যরা। তথাকথিত ইসলাম নামধারী এই সন্ত্রাসী গ্রুপ তাদের সদস্যদের জন্য এমনই একটি ফতোয়া জারি করেছে। এতে দাসীদের সঙ্গে যৌনমিলনের ক্ষেত্রে কয়েকটি বিশেষ নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স আইএসের জারি করা ফতোয়াটি প্রকাশ করেছে।

ফতোয়ায় দেওয়া বিশেষ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বাবা ও ছেলে একই দাসীর সঙ্গে যৌনমিলন করতে পারবে না। কেউ একজন যদি মা ও মেয়ে উভয়ের ‘মালিক' হয়ে থাকে তাহলে সে দু'জনের সঙ্গে যৌনসম্পর্ক গড়তে পারবে না, এক্ষেত্রে যে কোনো একজনকে বেছে নিতে হবে।

এছাড়া দাসীদের প্রতি সমবেদনা দেখাতে, দয়ালু হতে, আপমানিত না করতে এবং সে যে কাজ করতে সমর্থ নয় সেটি করতে তাকে বাধ্য না করতে মালিকদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

দাসীদের বিক্রির ক্ষেত্রে এমন কোনো মালিকের কাছে বিক্রি করা যাবে না যে (ভবিষ্যত মালিক) তার দাসীদের নির্যাতন করতে পারে বলে আগে থেকে অনুমান করা যায়।

জাতিসংঘ ও বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা আইএসের বিরুদ্ধে হাজার হাজার নারী ও তরুণী ধর্ষণের অভিযোগ এনেছে।

বিশেষ করে উত্তর ইরাকের ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের নারী ও তরুণীদের অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগ আছে আইএসের বিরুদ্ধে।

পুরস্কার হিসেবে আইএস যোদ্ধাদের এসব নারী দেয়া হয় বলে অভিযোগ আছে। এছাড়া দাস হিসেবে তাদের বিক্রিও করা হয়।

গত এপ্রিলে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এক প্রতিবেদনে ২০ জন নারীর সাক্ষাৎকার প্রকাশ করা হয়, যাঁরা আইএসের নিয়ন্ত্রণ থেকে পালিয়ে আসতে সমর্থ হয়েছেন।

তাঁরা জানান, অপহরণ কিংবা আটক করাদের মধ্যে যাঁরা অল্পবয়সি নারী তাঁদের প্রথমে পুরুষ ও বয়স্ক নারীদের থেকে পৃথক করে আইএস।

এরপর ঐ কমবয়সি নারীদের পুরস্কার হিসেবে আইএস যোদ্ধাদের দিয়ে দেয়া হয় কিংবা দাস হিসেবে তাদের বিক্রি করে দেয়া হয়। সেখানে এ সব নারীদের অসংখ্যবার ধর্ষণ ও নির্যাতন করা হয় বলে জানান তাঁরা।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

 

উপরে