আপডেট : ২৫ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৭:২৮

উত্তর কোরিয়ার শাসক হবেন ‘উন’; চাননি বাবা ‘ইল’

বিডিটাইমস ডেস্ক
উত্তর কোরিয়ার শাসক হবেন ‘উন’; চাননি বাবা ‘ইল’

উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের বিধ্বংসী কার্যকলাপ এবং স্বৈরাচারি মনোভব তাকে ইতোমধ্যেই ‘বাপ কা বেটা’র তকমা দিয়েছে। বাবা কিম জং ইলের মতোই দেশটিতে একচ্ছত্র ক্ষমতার জাল বিছিয়েছে পুত্র উন। সবাই তার মাঝে বাবার ছায়াই যেন দেখেতে পাচ্ছেন।

কিন্তু মৃত্যুর আগে উত্তর কোরিয়ার স্বৈরশাসক কিম জং ইল নাকি চাইতেন না তার পুত্র উন দেশ শাসন করুক। দক্ষিণ কোরিয়ার এক শীর্ষ গুপ্তচর সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে সম্প্রতি এমন তথ্যই জানিয়েছে।

রা জং ইল নামে দক্ষিণ কোরিয়ার ওই গুপ্তচর আরও জানান, উনের বাবা কিম জং ইল কখনোই চাননি উত্তর কোরিয়ায় বংশানুক্রমে নেতৃত্ব আসুক। বরং তিনি চেয়েছিলেন, তার সন্তানের পরিবর্তে ১০ জন ব্যক্তির সমন্বয়ে একটি শাসক প্যানেল তৈরী করতে, যাদের যৌথ সিদ্ধান্তে দেশ চলবে। কিন্তু ২০১১ সালে ইলের আকস্মিক মৃত্যুর পর পুত্র উন দুর্গম দেশটির ক্ষমতা দখল করে নেয়।

ইলের মৃত্যুর পর দেশটিতে যে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয় তার মধ্যেই উন নেতৃত্বকে নিজের হাতে নিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছিলেন।

ইলের এমন গণতান্ত্রিক চিন্তা তৎকালীন সময়ে তার পদস্থ কর্মকর্তারাও ভালোভাবে নিতে পারেননি। দীর্ঘ পারিবারিক শাসনব্যাবস্থা থেকে তিনি বেরিয়ে আসতে চাইছিলেন। আর তিনি ভালো করেই জানতেন, ক্ষমতা দখল এবং তা টিকিয়ে রাখার জন্য অনেক রক্ত এবং প্রজ্ঞার দরকার হয়। ইলের সম্ভবত নিজের ছেলের প্রতি আত্মবিশ্বাস কম ছিলো।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/পিএম

 

উপরে