আপডেট : ২৫ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৪:২৩

তুষার কেঁটে জাগতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
তুষার কেঁটে জাগতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র

ভয়াবহ তুষারঝড়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে আস্তে আস্তে স্বাভাবিকতা ফিরে আসছে। নিউইয়র্ক শহর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে। স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে নিউইয়র্ক নগরীর জনজীবন।

ওয়াশিংটনেও ঘর থেকে বেরিয়েছেন লোকজন। তবে অন্যান্য শহরে এখনো অচলাবস্থা বিরাজ করছে। 

তুষারপাতে দেশটির পাঁচটি অঙ্গরাজ্যে ২৮ জন মানুষ মারা গেছে। গাড়ি দুর্ঘটনা, কার্বন মনোঅক্সাইড বিষক্রিয়া ও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তারা। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বহু ঘরবাড়ি।

১৮৬৯ সালের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তুষারপাত হয়েছে নিউইয়র্কে। শুক্রবার থেকে প্রবল হতে থাকা এ ঝড় কেটে যাওয়ার পর রোববার শহরটিতে শুরু হয়েছে পরিচ্ছন্নতা অভিযান। সীমিত পরিসরে শুরু হয়েছে যান চলাচলও।

টানা দুইদিন পর ম্যানহাটনের প্রাণকেন্দ্রে দেখা গেছে সোনামাখা রোদ। সেই পরিবেশে আনন্দ-উল্লাস করতে দেখা গেছে স্থানীয় বাসিন্দা ও পর্যটকদের।

এই তুষারঝড়কে স্নোমেগেডন ও স্নোজিলা হিসেবে অভিহিত করা হচ্ছে। দুর্বল হয়ে এই তুষারঝড় এখন আটলান্টিক মহাসাগরের দিকে এগুচ্ছে।

স্নোজিলায় দেশটির প্রায় সাড়ে আট কোটি মানুষ দুর্ভোগের মুখে পড়ে। বিদ্যুৎও অন্যান্য সরবরাহ সংকটে পড়ে সাড়ে তিন লক্ষ মানুষ।

এদিকে দেশটির রাজধানী ওয়াশিংটনে এখনো মেট্রোরেল বন্ধ রয়েছে এবং বিমানপথও স্বাভাবিক হয়নি। তুষারঝড়ের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলে সাত হাজার ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। সোমবারও বাতিল করা হয়েছে ৬১৫ টি ফ্লাইট।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে