আপডেট : ২৪ জানুয়ারী, ২০১৬ ২০:০৮

পুরুষাঙ্গ কেটে হাতে ধরিয়ে দিলেন স্ত্রী

বিডিটাইমস ডেস্ক
পুরুষাঙ্গ কেটে হাতে ধরিয়ে দিলেন স্ত্রী

হিংস্র যৌনতা ছাড়া আনন্দ পেতেন না কামুক স্বামী। প্রতিবার যৌনতার সময়ে ক্ষতবিক্ষত হত স্ত্রীর শরীর। প্রাণ যায় যায় অবস্থা। কিন্তু স্বামীকে অনেকবার বারণ করেও কোন কাজ হচ্ছিল না। অসহ্য যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে অবশেষে স্বামীর যৌনাঙ্গ কেঁটে দিলেন স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে মালয়শিয়ায়।

জানা গেছে, মহিলার স্বামী একজন পাকিস্তানি এবং হিংস্র যৌনকামী। দীর্ঘদিন ধরে স্বামীর এই অমানবিক যৌনকাম সহ্য করছিলেন ওই মহিলা।

৫১ বছর বয়সী ওই মহিলা চার সন্তানের জননী। ধর্ম পরিবর্তন করেই বিয়ে হয় তাদের। বিয়ের পর থেকেই দাম্পত্যের অত্যাচার শুরু হয়। স্বামী অতি হিংস্র যৌনতা ছাড়া আনন্দ পেতেন না। এই বিকৃত যৌনতা দিনের পর দিন সহ্য করার কারণে বহু দিন ধরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। যার কারণে নিয়ে নেন এমন একটি কঠিন সিদ্ধান্ত। পরিকল্পনা এঁটে নেন নিজের মত করে। স্বামী ঘুমিয়ে পড়লেই কাজ শুরু করবেন।

যেই ভাবা সেই কাজ। স্বামী ঘুমিয়ে পড়লে মধ্যরাতে কেঁটে দিলেন পুরুষাঙ্গ। প্রবল যন্ত্রণায় ঘুম ভেঙে স্বামী আবিষ্কার করেন স্ত্রীর হাতে তার পুরুষাঙ্গ। 

জানা গেছে, কুয়ালালামপুর স্টেট জেনারেল হসপিটালে পুরুষাঙ্গটি অস্ত্রোপচার করে আবার সংযুক্ত করার জন্য ভর্তি করা হয়েছে মহিলার স্বামীকে তবে মহিলার সারা দেহেও অসংখ্য ক্ষতের সন্ধান পাওয়া গেছে।   

 বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে