আপডেট : ২৩ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৯:২৫

রোহিতের সুইসাইড নোট’র মুখোমুখি ভারতীয় রাজনীতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
রোহিতের সুইসাইড নোট’র মুখোমুখি ভারতীয় রাজনীতি
ফাইল ছবি

ভারতে দলিত বা নিম্ন বর্ণের রোহিত ভেমুলার আত্মহত্যাকে কেন্দ্র করে দিনকে দিন রাজনৈতিক কোন্দল বেড়েই চলেছে। শুধু তাই নয়, বাইরের পৃথিবীও রোহিতের সুইসাইড নোটে চোখ রেখে যেন আরও একবার দেখে নিচ্ছে ভারতীয় শ্রেণী বৈষম্য ও তাকে কেন্দ্র করে ঘোরা রাজনৈতিক ব্যবস্থাকে।

একদিকে রাজনৈতিক দলগুলি যখন রোহিতের মৃত্যুকে নিয়ে একে অপরকে তোপ দাগছে, অন্যদিকে রোহিতের সুইসাইড নোটের বিশেষ এক অংশে ‘রাজনীতি’ ও ‘কলেজ ইউনিয়ন’ সম্পর্কে লেখা কিছু তথ্য নিয়েও ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সবশেষে রোহিতের মৃত্যু নিয়ে মুখ খুললেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। ঘটনার পাঁচ দিন পর মৃত ছাত্রের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মোদি বলেছেন, ‘রাজনীতি দূরে থাক, এক মা তার সন্তানকে হারিয়েছেন। সেই যন্ত্রণা আমি অনুভব করতে পারছি।’

রোহিত তার শেষ চিঠিতে লিখেছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ইউনিয়নে যোগ দেওয়ার সময় তিনি একজন মার্কসবাদে বিশ্বাসী ছাত্র ছিলেন। কিন্তু এই ছাত্র সংগঠনের কিছু ছাত্রই তাকে নিচু জাতের হওয়ার জন্য খারাপ কথা বলত।

তার চিঠিতে স্পষ্ট লেখা আছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠনের কিছু ফাঁকা পদক্ষেপ এবং প্রচারের আলোয় আসার চেষ্টার কথা যা ছাত্র রাজনীতির পক্ষে খুব একটা সুবার্তা নয়।

পাশাপাশি আত্মপক্ষ সমর্থনের চেষ্টায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বন্দারু দত্তাত্রেয় বলেছিলেন রোহিত ও তার বন্ধুরা সুশীল কুমার নামের এক ছাত্রকে মেরেছিলেন আর তার শাস্তি হিসেবেই রোহিতসহ ৫ জন ছাত্রকে সাসপেন্ড করা হয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। দত্তাত্রেয়র এই মন্তব্যটিও অসত্য প্রমানিত হয়েছে। কারণ সুশীলের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অ্যাপেন্ডিক্সের সমস্যা নিয়ে সুশীল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কোনওরকম আঘাত বা শারীরিক চোট ছিল না তার গায়ে। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসায় আরও খানিকটা কোণঠাসা হয়ে গেছে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

রোহিতের মৃত্যুকে ঘিরে এই রাজনৈতিক জলঘোলা আরও কতদূর এগোয়, এখন সেটাই দেখার পালা।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/পিএম

উপরে